পুরুলিয়ায় দু’টি ও বাঁকুড়ায় একটি নতুন সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্প গড়বে রাজ্য। ১০ মেগাওয়াট করে ওই তিনটি প্রকল্পের জন্য খরচ পড়বে ১৮০ কোটি টাকা। কেন্দ্রীয় সংস্থা নাবার্ডের থেকে ঋণ নিয়ে সেগুলি গড়া হবে, যার দায়িত্বে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বিদ্যুৎ বণ্টন সংস্থা।

বণ্টন সংস্থা সূত্রে খবর, পুরুলিয়ার দু’টি হবে সাঁওতালডিহি তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের লাগোয়া টাউনশিপে এবং ছড়রায়। বাঁকুড়ারটি মেজিয়া-তে। তিনটি প্রকল্পেরই পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট তৈরির কাজ চলছে। শুরু হয়েছে, দরপত্র ডাকার প্রস্তুতি। এক বিদ্যুৎ-কর্তা বলেন, ‘‘৩টি প্রকল্পে গড়ে ৪০ একর করে লাগবে। ওই জমি রাজ্যের হাতে আছে। নাবার্ড ঋণ অনুমোদন করলেই কাজ শুরু হবে।’’

বিকল্প শক্তির ক্ষেত্রে রাজ্য এখন জোর দিচ্ছে সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদনে। যার জন্য পুরুলিয়া, বাঁকুড়া ও পশ্চিম মেদিনীপুরকে বিভিন্ন সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্পের জন্য বাছা হয়েছে। বিদ্যুৎ দফতর চাইছে, রাজ্যের গ্রিডে তাপবিদ্যুতের সঙ্গে আরও সৌর বিদ্যুৎ আসুক। মোট ৩০ মেগাওয়াটের যে-তিনটি প্রকল্পের পরিকল্পনা করা হয়েছে, সেখান থেকে উৎপাদিত বিদ্যুৎ গ্রিডেই আসবে।

বণ্টন সংস্থার এক কর্তা বলেন, ‘‘দরপত্র মারফত যে-বেসরকারি সংস্থা প্রকল্প তৈরির বরাত পাবে, তার সঙ্গে শর্তই থাকবে, সারা বছর নিদির্ষ্ট পরিমাণ সৌর বিদ্যুৎ গ্রিডে দেওয়ার। তার কম দিলে হবে না।’’ তাঁর দাবি, এখন সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্পের খরচ অনেক কমায় ও প্রযুক্তি উন্নত হওয়ায় সারা দেশেই বেশি উৎপাদন ক্ষমতার প্রকল্প তৈরি হচ্ছে।