• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আইডি ছুটি দিল চিনা তরুণীকে, উধাও বন্ধু

Beleghata ID Hospital
ছবি: সংগৃহীত।

Advertisement

মাথাব্যথা, জ্বর, গায়ে চুলকুনি এবং তলপেটে অস্বস্তি নিয়ে রবিবার গভীর রাতে বেলেঘাটার আইডি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। ‘নোভেল করোনাভাইরাস’-এ আক্রান্ত সন্দেহে চিকিৎসাধীন সেই চিনা তরুণী স্নো হুয়াইনকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ছুটি দিয়েছেন হাসপাতাল-কর্তৃপক্ষ।

ওই হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের প্রধান তপন বিশ্বাস সোমবার জানিয়েছিলেন, বছর আটাশের হুয়াইনের যা লক্ষণ, তা করোনাভাইরাস বলে মনে হচ্ছে না। স্বাস্থ্য ভবনের খবর, পুণের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজি (এনআইভি)-ও জানিয়ে দিয়েছে, পরীক্ষার জন্য ওই তরুণীর রক্ত ও লালার নমুনা পাঠানোর দরকার নেই। 

হুয়াইনকে হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে দিয়েছিলেন তাঁর এক বন্ধু। সেই বন্ধু বেপাত্তা হয়ে যাওয়ায় ওই তরুণীকে ছুটি দেওয়া নিয়ে সমস্যায় পড়ে স্বাস্থ্য ভবন। 

আরও পড়ুনমেলায় সৃষ্টি আরও ১৩-র, বই লিখে সেঞ্চুরি মুখ্যমন্ত্রীর

পরে চিনা দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করে হুয়েইনের ছুটির বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। আইডি হাসপাতালের অধ্যক্ষা অণিমা হালদার বলেন, ‘‘তরুণী ভাল আছেন। তাঁকে ছুটি দেওয়া হয়েছে।’’

সোমবার রুবি হাসপাতালে তাইল্যান্ডের নাগরিক সুরিন নাকতোই (৩২)-এর মৃত্যু হয়। স্বাস্থ্য ভবনের এক পদস্থ কর্তা জানান, ওই মহিলার ক্ষেত্রে করোনাভাইরাস পজ়িটিভ পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু চিনে যে-ধরনের করোনাভাইরাস হচ্ছে, সেটি তা নয়। এ দিন দিল্লি থেকে চার সদস্যের প্রতিনিধিদল ওই ভাইরাস মোকাবিলায় রাজ্যের প্রস্তুতি দেখতে  কলকাতায় আসে। স্বাস্থ্য ভবন সূত্রের খবর, দিল্লির প্রতিনিধিরা রাজ্যের প্রস্তুতি দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। 

কলকাতা ও হলদিয়া বন্দর, বজবজ ডকে ইনফ্রা-রেড থার্মাল স্ক্যানার দিয়ে জাহাজের নাবিকদের পরীক্ষা করে তবেই তাঁদের ডাঙায় নামার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন