• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

প্রাতর্ভ্রমণে বেরিয়ে ছিনতাইকারীর কবলে

Snatching
প্রতীকী ছবি।

প্রাতর্ভ্রমণে বেরিয়ে ছিলেন দম্পতি। স্বামীর কিছুটা পিছনে স্ত্রী। আচমকাই তাঁর গলার হারে টান মারে এক যুবক। টাল সামলাতে না পেরে পড়ে যান মহিলা। কিছু বোঝার আগেই সোনার হারটি নিয়ে দৌড়ে পালায় দুষ্কৃতী। মহিলার গলায় এবং ডান হাতের কনুইতে আঘাত লেগেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার ভোরে হেস্টিংস থানা এলাকার ক্যাথিড্রাল রোডে ভিক্টোরিয়া পূর্ব গেটের কাছের ফুটপাতে। 

ঘটনার পরেই কালীঘাট থানা এলাকার টার্ফ রোডের বাসিন্দা ওই দম্পতি হেস্টিংস থানায় গিয়ে ছিনতাইয়ের অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ জানিয়েছে, শনিবার রাত পর্যন্ত অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা না গেলেও শনাক্ত করা গিয়েছে। শুক্রবার রাতেই ওই দুষ্কৃতীর দক্ষিণ কলকাতার বাড়িতে হানা দিয়েছিলেন তদন্তকারীরা। পুলিশ জানিয়েছে, প্রাথমিক ভাবে শনাক্ত হওয়া ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে একাধিক অপরাধের অভিযোগ রয়েছে। তবে ওই এলাকার বেশির ভাগ সিসি ক্যামেরা খারাপ থাকায় দুষ্কৃতীর ছবি মেলেনি। তদন্তকারীরা জেনেছেন, ওই দম্পতি যে প্রাতর্ভ্রমণ করতে যান, তা আগে থেকেই জানত অভিযুক্ত। দু’দিন তাঁদের অনুসরণও করেছিল। তদন্তে জানা গিয়েছে, দুষ্কৃতী উল্টো দিক থেকে এসে মহিলাকে পেরিয়ে গিয়েও পিছন থেকে ফিরে আসে। 

অন্য দিকে, সোমবার রাতে কালীঘাট থানা এলাকার এস পি মুখার্জি রোডে এক যুবকের থেকে সোনার হার ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় এখনও অধরা দুষ্কৃতীরা। চারু মার্কেট থানা এলাকার রসা রোডের বাসিন্দা ওই যুবকের অভিযোগ, বাড়ি ফেরার সময়ে দুই যুবক তাঁকে মারধর করে হারটি ছিনিয়ে নেয়। পুলিশ জানিয়েছে,  তদন্ত শুরু হলেও যুবকের বয়ান অসম্পূর্ণ। দুষ্কৃতীরা কোন দিক থেকে এসেছিল বা কোন দিকে গিয়েছিল, তা জানা যায়নি। সিসি ক্যামেরা খারাপ থাকায় ছবিও মেলেনি।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন