হেলমেট ছাড়া বেপরোয়া ভাবে স্কুটার চালাতে গিয়ে ফের ঘটল দুর্ঘটনা। মৃত্যু হল এক যুবকের। আর এক আরোহীর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে মা উড়ালপুলে। মৃত যুবকের নাম সঞ্জয় রানা (২৫)। একাধিক চোট নিয়ে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন অপর আরোহী ছোট্টু দাস (২০)। দু’জনেই ট্যাংরার পুলিন খটিক রোডের বাসিন্দা। পুলিশের নজর এড়িয়ে রাত দশটার পরে কী ভাবে ওই স্কুটার মা উড়ালপুলে উঠল, প্রশ্ন উঠেছে তা নিয়ে। তা ছাড়া, শহর জুড়ে যে ভাবে নাকা তল্লাশি চলছে, তা এড়িয়ে ওই স্কুটার ট্যাংরা থেকে বেরিয়ে মা উড়ালপুল পর্যন্ত এল কী করে, সেটাও ভাবাচ্ছে পুলিশকে। যদিও পুলিশের একটি সূত্রের দাবি, ওই স্কুটারটি এ জে সি বসু রোড উড়ালপুল ধরে আসেনি। পার্ক সার্কাস মোড়ের দিক থেকে এসে পুলিশের নজর এড়িয়ে সেটি কোনও ভাবে মা উড়ালপুলে উঠে যায়। তার পরে উড়ালপুলের উপরে গড়িয়া ও সল্টলেকের দিকে বেঁকে যাওয়া দু’টি র‌্যাম্পের মাঝখানের গার্ডওয়ালে সজোরে ধাক্কা মারে। পুলিশ জানিয়েছে, তাতে দু’জনই ছিটকে উড়ালপুলের উপরে পড়ে যান।

খবর পেয়ে কিছু ক্ষণের মধ্যেই পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দু’জনকে উদ্ধার করে ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। কিন্তু মাথায় গুরুতর চোট থাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার বিকেলের দিকে সঞ্জয়ের মৃত্যু হয়। ছোট্টুকে একাধিক চোট নিয়ে এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ। সেখানে তিনি ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিট (সিসিইউ)-এ ভর্তি। প্রাথমিক তদন্তের পরে পুলিশ জানিয়েছে, বেপরোয়া গতির জন্যই কোনও ভাবে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে স্কুটারটি। আর তাতেই দুর্ঘটনা ঘটে। যদিও স্কুটারটি কে চালাচ্ছিলেন এবং কে পিছনে বসেছিলেন, তা এখনও জানা যায়নি। তবে কারও মাথাতেই হেলমেট ছিল না বলে পুলিশের তদন্তে উঠে এসেছে। 

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।