• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ফাইবারের বদলে বসছে ব্রোঞ্জের বিদ্যাসাগর

vidyasagar
আজ, বৃহস্পতিবার উন্মোচন হবে এই মূর্তিই। নিজস্ব চিত্র

সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল বিদ্যাসাগরের পূর্ণাবয়ব ফাইবার মূর্তিটি। জুন মাসে বিদ্যাসাগর কলেজের সামনে বসানো হয়েছিল সেই মূর্তি। সেখানে বসানো হয়েছে একই উচ্চতার ব্রোঞ্জের পূর্ণাবয়ব। আজ, বৃহস্পতিবার সেই মূর্তির আবরণ উন্মোচন করা হবে। ফাইবারের ওই মূর্তি ইতিমধ্যেই চলে গিয়েছে বিকাশ ভবনের সামনে।

কলকাতায় লোকসভা নির্বাচনের কয়েক দিন আগে গত ১৪ মে বিজেপি নেতা অমিত শাহের রোড-শো থেকে বিদ্যাসাগর কলেজে একদল দুষ্কৃতী ঢুকে তাণ্ডব চালানোর অভিযোগ উঠেছিল। সেই সময় মূর্তিও ভাঙা পড়ে। জুন মাসে ওই কলেজে বিদ্যাসাগরের দু’টি মূর্তি উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একটি মূর্তি বসে কলেজের ভিতরে এবং অন্যটি বাইরে।

বাইরের পূর্ণাবয়ব ফাইবারের মূর্তিটি সরিয়ে তার জায়গায় বসানো ব্রোঞ্জের মূর্তির এ দিন আবরণ উন্মোচন করা হবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যাসাগর কলেজের অধ্যক্ষ গৌতম কুন্ডু। তিনি বলেন, ‘‘যখন দু’টি মূর্তি বসে, তখনই ঠিক হয়েছিল, বাইরে বিদ্যাসাগরের মূর্তিটি ব্রোঞ্জের হবে। কিন্তু সেই মূর্তি দ্রুত তৈরি করার প্রয়োজন ছিল। এ দিকে ব্রোঞ্জের মূর্তি গড়া সময়সাপেক্ষ। তাই তখনকার মতো ফাইবারের মূর্তি গড়ে দিয়েছিলেন কৃষ্ণনগরের শিল্পী গৌতম পাল। ব্রোঞ্জের মূর্তিটিও বানিয়ে দিয়েছেন গৌতমবাবুই।’’

বিদ্যাসাগরের দ্বিশত জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আজ কলেজ স্কোয়ার, বিদ্যাসাগর কলেজ, বিকাশ ভবন-সহ বেশ কয়েকটি জায়গায় একাধিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। তাতে উপস্থিত থাকার কথা শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। পাশাপাশি কলেজের সামনের ব্রোঞ্জ মূর্তিটির আবরণ উন্মোচন হবে। সেই সঙ্গে বিকাশ ভবনের মূল গেটের কাছে তুলে নিয়ে যাওয়া ফাইবারের মূর্তিটিরও পর্দা সরানো হবে। গৌতমবাবু জানান, ফাইবারের মূর্তিটির দৈর্ঘ্যেই হয়েছে ব্রোঞ্জের মূর্তি। মূর্তির গায়ে যাতে নোংরা না পড়ে, তাই কিছু দিনের মধ্যেই ছাউনি করে দেওয়া হবে। মূর্তির চাকচিক্যের জন্য বিশেষ পালিশ ব্যবহার করা হবে বলে জানিয়েছেন অধ্যক্ষ।

মূর্তি-নির্মাতা গৌতমবাবু ফোনে জানান, এই ব্রোঞ্জের মূর্তিটি তিনি ও তাঁর সহকারীরা এক মাসে বানিয়েছেন। এর দৈর্ঘ্য ৯ ফুট। গৌতমবাবু বলেন, ‘‘মাসখানেক আগে ব্রোঞ্জের মূর্তি তৈরির বরাত পাই। এই মূর্তিও তাড়াতাড়ি তৈরি করতে হল। তাই রাত জেগে এক মাসে আমরা বানিয়ে ফেলেছি।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন