• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

করোনা আক্রান্ত কৃষি কর্মাধ্যক্ষ-সহ ২

people without mask
মাস্ক ছাড়াই রাস্তায়। ছবি: সুজিত দুয়ারি

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন বনগাঁ পঞ্চায়েত সমিতির কৃষি কর্মাধ্যক্ষ। সোমবার তাঁর রিপোর্ট বোরোয়। বনগাঁ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি প্রদীপ বিশ্বাস বলেন, ‘‘কৃষি কর্মাধ্যক্ষ করোনা পজিটিভ হয়েছেন। তিনি বুধবার শেষ সমিতিতে এসেছিলেন। সোমবার সমিতির অফিস স্যানিটাইজ করা হয়েছে। আমি নিজেও লালারস পরীক্ষা করিয়েছি।’’ 

বনগাঁ ব্লকের কালুপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দা এক পরিযায়ী শ্রমিকের  করোনা পজি়টিভ হয়েছেন। তাঁর রিপোর্ট এসেছে রবিবার। পঞ্চায়েত প্রধান মুক্তি সরকার বলেন, ‘‘রবিবার একজনের পজি়টিভ রিপোর্ট এসেছে। গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় সোমবার পর্যন্ত মোট ৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মঙ্গলবার থেকে সাত দিনের জন্য এলাকার বাজার হাট বন্ধ রাখা হবে।’’  স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে,  বনগাঁ ব্লকের রোজই বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। সোমবার পর্যন্ত ব্লকে আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৩৮ জন। রবিবার পাল্লা এলাকার এক পরিযায়ী শ্রমিকও করোনা পজি়টিভ হয়েছেন বলে স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে।  

হাবড়ায়  সোমবার এক মহিলা-সহ ২ জন হাবড়া শহরে করোনা আক্রান্ত হলেন। হাবড়া পুরসভার স্বাস্থ্য আধিকারিক মানস দাস বলেন, ‘‘সোমবার ১ মহিলা-সহ ২ জনের লালারস পরীক্ষার রিপোর্ট এসেছে। তাঁরা করোনা পজি়টিভ। হাবড়া শহরে সোমবার পর্যন্ত করোনা পজি়টিভের সংখ্যা দাঁড়াল ৪৭। তার মধ্যে অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা ২৩ জন।’’ 

হাবড়া পুরসভা এলাকায় রোজই বাড়ছে করোনা পজি়টিভ মানুষের সংখ্যা। অথচ কিছু মানুষ এখনও মাস্ক ছাড়া যাতায়াত করছেন। বাজারের মধ্যে মাস্ক ছাড়াই ক্রেতা-বিক্রেতারা আনাজ, মাছ, মাংস বেচাকেনা করছেন। শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা হচ্ছে না বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই।         

 করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে রবিবার ব্যবসায়ীরা বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তাঁরা হাবড়া শহরের বাজারহাট-দোকান বন্ধ রাখবেন। শুধু ওষুধের দোকান ও জরুরি পরিষেবা খোলা থাকবে। 

 হাবড়া চেম্বার অব কর্মাস অ্যান্ড ইন্ডাস্টির সাধারণ সম্পাদক নিরঞ্জন সাহা বলেন, ‘‘হাবড়া শহরে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে বুধবার সকাল থেকে ৮ দিন আমরা বাজারহাট দোকানপাট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। অত্যাবশীয় পরিষেবা চালু থাকবে।’’ 

 ব্যবসায়ীদের এই সিদ্ধান্তে খুশি হাবড়ার মানুষ।          

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন