• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আংশিক ও সময়ভিত্তিক লকডাউনের পথে বারাসত

Lockdown
প্রতীকী ছবি।

করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। বাড়ছে মৃত্যুও। সাধারণ মানুষ তো বটেই, পুলিশ থেকে শুরু করে পুর প্রশাসন, করোনার ছোঁয়াচ থেকে যেন নিস্তার নেই কারও। রোগের মোকাবিলায় তাই কাল বৃহস্পতিবার থেকে সাত দিনের জন্য বারাসতে আংশিক ও সময়ভিত্তিক লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিল পুরসভা। দুপুর ১টার পর পুর এলাকায় জরুরি পরিষেবা ছাড়া সমস্ত দোকানপাট, বাজার-হাট বন্ধ থাকবে। মঙ্গলবার বারাসত পুরসভায় একটি সর্বদলীয় বৈঠক করে এই লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

ওই পুরসভার চেয়ারম্যান সুনীল মুখোপাধ্যায় আগেই করোনায় আক্রান্ত হন। উত্তর ২৪ পরগনা জেলা পরিষদেরও অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সে সব বিষয় মাথায় রেখে এর আগেই পুরসভার প্রশাসকমণ্ডলী নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে কোভিড মোকাবিলায় কিছু জরুরি পদক্ষেপের সিদ্ধান্ত নেয়। এ দিন তা নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠকের পরে লকডাউনের সিদ্ধান্ত মেনে নেয় সব দলই। এর পরে জানানো হয়, প্রতিদিন সকাল থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত খোলা থাকবে বাজার-হাট, দোকানপাট।

বারাসত পুর এলাকায় কোভিড হাসপাতাল তৈরির দাবিতে রাস্তা অবরোধও হয়েছে। এ দিন সভায় সিদ্ধান্ত হয়, বাড়তে থাকা করোনার সঙ্গে চিকিৎসার সঙ্কট সামাল দিতে বারাসতে চালু করা হবে কোভিড হাসপাতাল। ওই পুরসভার কার্যনির্বাহী প্রশাসক অশনি মুখোপাধ্যায় জানান, এক দিকে লকডাউনে মানুষের আর্থিক সমস্যা, অন্য দিকে বারাসতে ক্রমশ বাড়তে থাকা করোনার সংক্রমণ প্রতিহত করতেই আগামী সাত দিন এ ভাবে আংশিক সময়ের জন্য লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন