• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

লুটপাট, ব্যবসায়ীকে গুলির অভিযোগে গ্রেফতার পাঁচ

Durgapur
বৃহস্পতিবার দুর্গাপুর থানায় ধৃতেরা। নিজস্ব চিত্র

বুদবুদের স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে গুলি করে লুটপাটের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে। তাদের কাছ থেকে লুট হওয়া কিছু গয়না ও নগদ কয়েক হাজার টাকা উদ্ধার হয়েছে বলে জানান কমিশনারেটের ডিসি (পূর্ব) অভিষেক গুপ্ত। বৃহস্পতিবার ধৃতদের দুর্গাপুর আদালতে তোলা হলে তাদের ১৪ দিন পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়।

বুদবুদের মানকর রোডে গয়নার দোকান রয়েছে বর্ধমানের ভাতছালার বাসিন্দা সমর সরকারের। প্রতিদিন সন্ধ্যায় দোকান বন্ধ করে ব্যাগপত্র বুদবুদের সুকান্তনগরে শ্বশুরবাড়িতে রেখে বাড়ি ফেরেন। ১৪ অগস্ট ক্যানালপাড়ের কাছে মোটরবাইকে করে এসে তিন জন দুষ্কৃতী তাঁকে তাক করে গুলি ছোড়ে বলে অভিযোগ। মোটরবাইক ফেলেই চম্পট দেয় অভিযুক্তেরা।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান এসিপি (কাঁকসা) শাশ্বতী শ্বেতা সামন্ত। তদন্তকারীরা জানতে পারেন, অভিযুক্তদের ফেলে যাওয়া মোটরবাইকটি দিন পনেরো আগে বর্ধমান থেকে চুরি হয়েছিল। পুলিশ মোটরবাইকের মালিকের খোঁজে বর্ধমানে পৌঁছয়। এ দিকে, বুদবুদে একটি সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজও পুলিশের হাতে আসে। সেখানে তিন জনকে দেখা যায়।

মোটরবাইক চুরির ঘটনার তদন্ত করতে-করতে পুলিশ পৌঁছয় গলসির পারাজের শেখ লোকমানের কাছে। তাকে গ্রেফতার করে জেরা শুরু করে পুলিশ। তদন্তকারীরা জানান, ধৃতের কাছ থেকে সূত্র পেয়ে এই ঘটনার ‘মাথা’, মঙ্গলকোটের শহিদ শেখকে গ্রেফতার করা হয়। 

পুলিশের দাবি, শহিদের পরিকল্পনা মতো লোকমান এলাকা ‘রেকি’ (সুলুকসন্ধান) করে। এর পরে শহিদ বর্ধমানের তিন যুবক চঞ্চল শেখ, সাহিল মণ্ডল ও রাকেশ শেখকে মোটরবাইকে করে লুটপাট করতে বুদবুদে পাঠায়। পুলিশ ওই তিন জনকেও গ্রেফতার করেছে। পুলিশ জানায়, ধৃতদের কাছ থেকে একটি নাইন এমএম পিস্তল ও সাত রাউন্ড গুলিও উদ্ধার করা হয়েছে।

ডিসি (পূর্ব) জানান, ঘটনায় আরও এক জন জড়িত। ধৃতদের জেরা করে তাকে দ্রুত গ্রেফতার করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।     

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন