ফোন করে বিজেপি নেতা, কর্মীরা তাঁকে ‘জয় শ্রীরাম’ না বললে ‘দেখে নেওয়ার’ হুমকি দিয়েছেন। সম্প্রতি এমনই অভিযোগ করেছিলেন জেলা পরিষদের সহ-সভাধিপতি তথা তৃণমূলের জেলা কো-অর্ডিনেটর দেবু টুডু। এ বার বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ প্রকাশ্য সভায় দলীয় নেতা, কর্মীদের দেবুবাবুর মোবাইল নম্বর দিয়ে তাঁকে ‘জয় শ্রীরাম’ বলার নিদান দিলেন বলে জানাচ্ছেন বিজেপি কর্মীদের একাংশ। শুক্রবার সন্ধ্যায় গলসির আদড়াহাটি বাসস্ট্যন্ডে সভাটি হয়।  

ওই সভায় যোগ দেওয়া কর্মীদের একাংশ জানান, সেখানে সাংসদ বলেন, ‘‘একটা ফোন নম্বর বলছি। আপনারা ফোন করবেন। আমিও করেছিলাম। কিন্তু স্যুইচ অফ পেলাম। আমাদের বর্ধমান জেলার সহ-সভাধিপতি দেবু টুডু তাঁর নম্বর হল... । ওই নম্বরে ফোন করে ‘গুড মর্নিং‌’ বলে বলবেন, ‘জয় শ্রীরাম’। আমিও বলব। আপনারাও বলবেন।”

এই ঘটনার পরেই ফের তৃণমূল-বিজেপি তরজা শুরু হয়েছে। দেবুবাবু সাংসদের এমন মন্তব্যের প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘ওঁরা হতাশ। মানুষ ওঁদের মানছেন না। এ সব বলা আসলে সেই হতাশারই প্রকাশ।’’ যদিও বিজেপি নেতৃত্বের একাংশ, সাংসদের এমন মন্তব্যের কারণ হিসেবে দেবুবাবুর বর্ধমান ১ ব্লকে কুড়মুনের সভায় বলা একটি মন্তব্যকে ‘হাতিয়ার’ করছেন। তাঁদের দাবি, দেবুবাবু ওই সভা থেকে ‘জয় শ্রীরাম’ বললে ঘাড়ধাক্কা দেওয়ার নিদান দিয়েছিলেন। যদিও দেবুবাবু এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।