• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

তিন ঘণ্টা ছাড় পণ্যবাহী যানে

flyover
ফাইল চিত্র।

রেল উড়ালপুল দিয়ে পণ্যবাহী যান চলাচলের সমস্যা মেটাতে বৈঠক করল জেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার বর্ধমানে এই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, দিনে তিন ঘণ্টা ওই উড়ালপুল ধরে পণ্যবাহী যানবাহন যাতায়াত করতে পারবে। সোমবার বর্ধমান ভবনে এক বৈঠকে দলের বিদায়ী কাউন্সিলরদের কাছে এই সমস্যার কথা শোনেন রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। তাঁর নির্দেশেই এ দিন বৈঠক হয় বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বহু দিন ধরেই দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত বর্ধমান স্টেশনের গুডস শেডে পণ্যবাহী যানবাহন যাতায়াত করত। দিন পনেরো আগে প্রশাসনের তরফে এক নির্দেশিকায় শহরের নতুন উড়ালপুলে সকাল ৮টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত পণ্যবাহী যান চলাচলে নিষেধ আরোপ করা হয়। শহরের ব্যবসায়ীদের দাবি, এই নির্দেশিকায় সমস্যা তৈরি হয়। বর্ধমান ১ ব্লকের কয়েকটি কারখানায় পণ্য আনা-নেওয়ার কাজ ও শহরের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ব্যবসায়ীরা বেশি মুশকিলে পড়েন। গুডস শেড থেকে পণ্য আনা-নেওয়ার ক্ষেত্রেও মুশকিল হয়।

সুরাহার দাবিতে দিন দশেক আগে কারখানা কর্তৃপক্ষ, পণ্য সরবরাহের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিভিন্ন সংস্থা, ট্রাক মালিকদের সংগঠন, শ্রমিক-কর্মচারীদের প্রতিনিধিরা জেলাশাসকের দ্বারস্থ হন। তাঁরা দাবি করেন, সকাল থেকে রাত পর্যন্ত পণ্যবাহী যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞায় অনেকের রুটিরুজিতে টান পড়েছে। কারখানা-সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রেও সমস্যা হচ্ছে। দুপুর ১২টা থেকে ৩টে পর্যন্ত ছাড় দেওয়ার দাবি জানান তাঁরা।

এই বৈঠকের পরে, সপ্তাহখানেক ওই সময়ে পণ্যবাহী যানবাহন চলতে থাকে। কিন্তু তার পরে তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। তৃণমূল সূত্রে জানা যায়, সোমবার সন্ধ্যায় ফিরহাদ হাকিমের সঙ্গে বৈঠকে সমস্যার কথা জানান ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর মহম্মদ আলি। এর পরেই মঙ্গলবার দুপুরে বৈঠকে বসে জেলা প্রশাসন। জেলাশাসক বিজয় ভারতী ছাড়াও ছিলেন  ডিএসপি (সদর) শৌভিক পাত্র, পুরসভা এবং ব্যবসায়ীদের প্রতিনিধিরা।

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৩টে পর্যন্ত উড়ালপুল দিয়ে পণ্যবাহী যানবাহন চলতে পারবে। তা মেনে নিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। ব্যবসায়ীদের প্রতিনিধি অচিন্ত্য মণ্ডল, কেষ্ট মণ্ডল, অভয় লাহা, সুভাষ মোদকেরা জানান, সমস্যা হলে ফের আলোচনা হবে বলে প্রশাসন জানিয়েছে। বিদায়ী কাউন্সিলর মহম্মদ আলি বলেন, ‘‘মন্ত্রী বিষয়টি নিয়ে পদক্ষেপ করতে বলার পরে জেলা প্রশাসন দ্রুত আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমরা খুশি।’’ জেলাশাসক বিজয় ভারতী জানান, বৈঠকে প্রথমে দু’ঘণ্টা পণ্যবাহী যান চালানোর কথা হলেও, পরে তা তিন ঘণ্টা করা হল। তিনি বলেন, ‘‘আশা করি, সমস্যা হবে না।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন