চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। সোমবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে। ঘটনার পরে স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযুক্তকে মারধর করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। পুলিশ অভিযুক্ত অজিত হালদারকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বছর দশেকের ওই নাবালিকা ঘটনার দিন সন্ধ্যায় বাড়িতে একাই ছিল। অভিযোগ, সুযোগ বুঝে মেয়েটির বাড়িতে যায় অজিত। ওই নাবালিকার বাবার অভিযোগ, অজিত তাঁর সঙ্গে আগে কাজ করত। সামান্য কিছু টাকা পাওনা ছিল তাঁর কাছে। টাকা চাইতে আসার নাম করে সোমবার সন্ধ্যায় বাড়িতে হাজির হয় সে। তাঁর মেয়েকে একা পেয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে অজিত। মেয়ের চিৎকারে আশপাশের বাসিন্দারা জড়ো হয়ে যান। বাসিন্দারাই মেয়েটির বাবাকে খবর দেওয়ার পাশাপাশি অভিযুক্তকে ধরে মারধরও করেন স্থানীয়রা। পরে কোকআভেন থানার পুলিশ এসে অভিযুক্ত অজিত হালদারকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। ধৃতের বাড়ি ৩৯ নম্বর ওয়ার্ডের বিদ্যাসাগরপল্লি এলাকায়। পুলিশ জানিয়েছে, পক্সো আইনে অজিতের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে। ধৃতকে মঙ্গলবার আদালতে হাজির করানো হলে এক দিনের জেল হাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। আজ, বুধবার ওই নাবালিকার গোপন জবানবন্দি নেওয়া হবে।