• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নলি কেটে স্ত্রীকে খুনের নালিশ

Logo
মৃত জামিলা বিবি। —নিজস্ব চিত্র।

গলার নলি কেটে স্ত্রীকে খুনের অভিযোগ উঠল স্বামী-সহ শ্বশুরবাড়ির পাঁচ জনের বিরুদ্ধে। মন্তেশ্বরের ইচু গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। মৃত জামিলা বিবির (২৪) বাবা জামিল আলি শেখ থানায় অভিযোগ করেন, এর আগেও তাঁর মেয়েকে খুনের চেষ্টা করা হয়েছিল। যদিও রাত পর্যন্ত অভিযুক্তদের খোঁজ পায়নি পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার রাতে বাড়িতেই রক্তাক্ত দেহ মেলে জামিলার। প্রতিবেশিদের কাছ থেকে খবর পেয়ে ওই গ্রামে গিয়ে দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। রাত দশটা নাগাদ টেলিফোনে মেয়ের মৃত্যু সংবাদ পান পূর্বস্থলী ১ ব্লকের নাদনঘাটের বাসিন্দা জামিদ আলি শেখ। মেয়ের শ্বশুরবাড়িতে এসে তিনি দেখেন, পুলিশ দেহটিকে উদ্ধার করে নিয়ে গিয়েছে। সোমবার থানায় লিখিত অভিযোগ করেন তিনি।

জামিদ আলি জানিয়েছেন, বছর ছয়েক আগে জামিলার বিয়ে হয়। দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে তাঁর। বিয়ের পর থেকেই শ্বশুরবাড়িতে নানা কারণে তাঁকে নির্যাতন করা হত বলেও তাঁর দাবি। অত্যাচারের হাত থেকে বাঁচতে বধূ নির্যাতনের মামলা করেন তাঁরা। তারপরে চার বছর ধরে বাপের বাড়িতেই ছিলেন জামিলা। তবে মাস তিনেক আগে জামাই মনিরুল শেখ মেয়েকে ফিরিয়ে নিয়ে আসে। এ দিন জামিদ আলি বলেন, ‘‘শ্বশুরবাড়ি গেলেও মেয়ে বিড়ি বেঁধে উপার্জন করত। এর আগেও অ্যাসিড এবং কেরোসিন তেল ঢেলে মেয়েকে ফেলার চেষ্টা হয়েছিল। আগের দু’বার বেঁচে গেলেও এ বার মেয়েকে নলি কেটে খুন করেছে ওরা।’’ 

তাঁর দাবি, ‘‘ঘটনায় জড়িত রয়েছে জামাই, মেয়ের শ্বশুর, শাশুড়ি-সহ বাড়ির পাঁচ জন। পুলিশ তদন্ত করলেই জানতে পারবে কী ভাবে মেয়েকে খুন হতে হয়েছে।’’ মৃতার মা মনোয়ারা বিবি বলেন, ‘‘মেয়েকে যাঁরা খুন করল তাঁদের যেন ফাঁসি হয়।’’ পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনাটি

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন