• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কুয়াশার মধ্যে বাড়িতে ধাক্কা ট্রাকের, কালনায় মৃত মহিলা

Accident
এখানেই দুর্ঘটনা। নিজস্ব চিত্র

কাজে যাওয়ার জন্য রাস্তার ধারে মোটরভ্যানের অপেক্ষা করছিলেন খেতমজুর। আচমকা কুয়াশার মধ্যে নিয়ন্ত্রণ হারানো একটি ট্রাক প্রথমে রাস্তার পাশে একটি বাড়ির দেওয়াল, তার পরে ধাক্কা দেয় তাঁদের। বৃহস্পতিবার ভোরে কালনার আয়মাপাড়ায় এই দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল এক মহিলার। আহত হন তাঁর স্বামী-সহ চার জন।

কালনার সিমলন-আটঘোরিয়া পঞ্চায়েতে রয়েছে এই গ্রামটি। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গ্রাম থেকে বহু খেতমজুর পূর্বস্থলী, কাটোয়া-সহ নানা জায়গায় কাজ করতে যান। ভোরে মোটরভ্যানে করে তাঁরা ধাত্রীগ্রাম স্টেশনে পৌঁছন। সেখান থেকে ট্রেন ধরেন। বুধবার গভীর রাত থেকে কুয়াশায় ঢেকেছিল এলাকা। ভোর ৪টে নাগাদ আট জন খেতমজুরির কাজে যাওয়ার জন্য বেরিয়েছিলেন। তাঁরা রাস্তার ধারে একটি বাড়ির পাশে মোটরভ্যানের জন্য অপেক্ষা করছিলেন।

ওই দলে ছিলেন দুর্গা ক্ষেত্রপাল। তিনি জানান, আচমকাই কালনা থেকে বর্ধমানের দিকে যাওয়া একটি দশ চাকার ট্রাক রাস্তার পাশে থাকা কয়েকটি কংক্রিটের খুঁটিতে ধাক্কা দিতে দিতে এগিয়ে এসে টালির চালের বাড়িতে ধাক্কা মারে। ওই বাড়ির সামনেই দাঁড়িয়ে ছিলেন প্রতিমা ক্ষেত্রপাল (৩২)। তিনি ট্রাকের চাকার তলায় পড়েন। ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। বাড়ির ধ্বংসাবশেষ গায়ে পড়ে আহত হন তাঁর স্বামী জয়দেব ক্ষেত্রপাল-সহ চার জন। ঘটনার পরে ট্রাকটি দ্রুত পালিয়ে যায়।

ওই খেতমজুরেরা জানান, আচমকা এমন ঘটনায় তাঁরা হতভম্ব হয়ে পড়েন। তবে দেওয়ালের একাংশ ভাঙলেও অল্পের জন্য রক্ষা পান বাড়িটিতে থাকা চার জন। আহত খেতমজুরদের কালনা মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। দুর্গাদেবী বলেন, ‘‘পাটুলিতে ধানের চারা পোঁতার কাজে যাওয়ার কথা ছিল আমাদের। ট্রাকটি একটি বাঁকের মুখে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাড়ির দিকে ধেয়ে আসে। এত দ্রুত সব কিছু ঘটে যায় যে সবাই নিরাপদ জায়গায় সরে যাওয়ার সুযোগ পাইনি।’’ পুলিশ জানায়, ট্রাকটির খোঁজ চলছে। আহতদের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন