• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ডিজে বাজিয়ে বাগদেবী আরাধনা, বিতর্কে কলেজ

DJ
উদ্দাম: চলছে ডিজে বাজিয়ে নাচ। ছবি: সঞ্জীব ঘোষ

ডিজে বন্ধ করতে গত রবিবার ও সোমবার মিছিল করেছিলেন জাঙ্গিপাড়ার বাসিন্দারা। ডিজে বন্ধ নিয়ে বারবার বলছেন পরিবেশপ্রেমীরা। পুলিশের দাবি, ডিজে বাজতে দেখলেই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। অথচ বুধবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত সরস্বতী পুজো উপলক্ষ্যে গোঘাটের কামারপুকুর শ্রীরামকৃষ্ণ সারদা বিদ্যা মহাপীঠে ডিজে বাজিয়ে নাচল ছাত্র-ছাত্রীরা।  স্থানীয়দের অভিযোগ, শব্দতাণ্ডব নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেননি কলেজ কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় এবং কলেজ সূত্রে জানা গেছে,  সকাল ১০টা থেকেই ডিজের দাপট শুরু হয়। পালা করে চলতে থাকে পড়ুয়াদের নাচ। দুপুর ১২ টা নাগাদ পুজোর উদ্বোধন এবং খিচুড়ি খাওয়ার সময়টুকু বাদ দিয়ে ফের বিকাল ৪টা পর্যন্ত ডিজে বাজে এবং নাচ চলতে থাকে।  

ডিজে বাজানোর  কথা অস্বীকার করেননি তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সমর ঘোষ। তাঁর সাফাই, “ডিজে নিয়ে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও আমরা তো পুজো উপলক্ষ্যে একদিনের জন্য বাজিয়েছি। পাশেই মঠের স্কুল থাকায় শব্দ ছিল নিয়ন্ত্রিত। স্থানীয় মানুষের অসুবিধা করিনি।”

কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ চিত্তরঞ্জন ঘোষ অবশ্য বলেছেন, “আমি দুপুর ১টা থেকে ২টা ১৫ মিনিট পর্যন্ত কলেজে ছিলাম। কোন ডিজে বাজতে শুনিনি বা দেখিনি।” তাঁর দাবি, “ডিজে বাজানোর অনুমতি দেওয়া হয়নি। এমনকি মাইক বাজলেও শব্দবিধি মেনে বাজাতে বলা হয়েছিল। অবশ্যই এর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

পুজো বা পিকনিকে ডিজে তাণ্ডব অনেকটাই নিয়ন্ত্রণ করা গেছে জানিয়ে এসডিপিও (আরামবাগ) নির্মলকুমার দাস বলেন, “কলেজে ডিজে বাজলে সেটা কলেজের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার। আমাদের কাছে এ নিয়ে কোনও অভিযোগ ছিল না। সর্বত্রই ডিজের দাপট ছিল কম।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন