আগামী মে মাসে হলদিয়া পুরসভার তৃণমূল ও সিপিএম কাউন্সিলররা এক সঙ্গে সপরিবার দার্জিলিং ও গ্যাংটক বেড়াতে যাবেন বলে স্থির হয়েছিল। যদিও হলদিয়ায় এখন পুরভোট নেই। তবু বিতর্ক এড়াতে দলীয় কাউন্সিলরদের এই প্রমোদ ভ্রমণে যেতে নিষেধ করলেন জেলা সিপিএম নেতৃত্ব। রবিবার সিপিএমের পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সম্পাদক নিরঞ্জন সিহি দলের হলদিয়া (দক্ষিণ) জোনাল কমিটির সম্পাদক শ্যামল মাইতিকে এই মর্মে নির্দেশ দিয়েছেন।

নিরঞ্জনবাবু এ দিন বলেন, ‘‘আমরা শুনেছি হলদিয়ার সব কাউন্সিলর পুরসভার টাকায় ভ্রমণে যাচ্ছেন। পুরসভার টাকা মানে জনগণের টাকা। সেই টাকায় কাউন্সিলরদের আমোদ-প্রমোদ আমাদের নীতি বিরুদ্ধ। তাই আমাদের ৬ জন কাউন্সিলরের ট্রেনের টিকিট কাটা হলেও তা প্রত্যাখান করার নির্দেশ দিয়েছি।’’ হলদিয়া পুরসভার বিরোধী দলনেত্রী সিপিএমের তাপসী মণ্ডল জানান, কাউন্সিলররা আলোচনা করেই ঘুরতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। সেই অনুযায়ী টিকিটও কাটা হয়েছে। তাপসীদেবী এ দিন বলেন, ‘‘এ নিয়ে দলের নির্দেশ এখনও পাইনি। তা পেলেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’’

পুর-কাউন্সিলরদের এ ভাবে প্রমোদ ভ্রমণে যাওয়া নিয়ে অস্বস্তি রয়েছে তৃণমূলেও। তমলুকের সাংসদ শুভেন্দু অধিকারী কড়া ভাবেই বলেন, ‘‘যদি সত্যিই পুরসভার অর্থে কাউন্সিলরদের দার্জিলিং ভ্রমণের ব্যবস্থা করা হয় তা নিন্দনীয়। এটা আমাদের দলের পরিপন্থীও বটেও। আমরা যেখানে মানুষের সুবিধার জন্য জলকর তুলে দিয়েছি, সেখানে পুরসভার টাকায় ভ্রমণ সমর্থনযোগ্য নয়। দলের পক্ষ থেকে হলদিয়া পুরসভার চেয়ারম্যানের কাছ থেকে এ বিষয়ে লিখিতভাবে জানতে চাইব।’’

হলদিয়ার তৃণমূল পুরপ্রধান দেবপ্রসাদ মণ্ডল অবশ্য সবাই মিলে এ ভাবে বেড়াতে যাওয়ার মধ্যে অন্যায় কিছু দেখছেন না। তিনি বলেন, ‘‘প্রতি বছরই কাউন্সিলরদের বিনোদন বাবদ কিছু অর্থ খরচ করার নিয়ম রয়েছে। সেই মতো এ বার আলোচনা করে দার্জিলিং ঘুরতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। ঠিক হয়েছে কাউন্সিলরদের বিনোদন বাবদ পুরসভা আড়াই লক্ষ টাকা খরচ করবে। তার বেশি খরচ হলে কাউন্সিলরা দেবেন। আমরা কোনও ভাবে জনগণের অর্থ তছরুপ করছি না।’’ হলদিয়া পুরসভার এক্সিকিউটিভ অফিসার জগবন্ধু দাসও জানান, পুরবোর্ডের আর্থিক বিষয়ে যে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে।     

আগামী ২১ মে কাউন্সিলরদের বেড়াতে যাওয়ার কথা। তাঁরা ফিরবেন ২৭ মে। কাউন্সিলর ও তাঁদের পরিবারের দু’জন করে সদস্য মিলে মোট ৭৬ জনের জন্য যাওয়া-আসার ট্রেনের টিকিট কাটা হয়েছে। গত বছরও হলদিয়ার কাউন্সিলররা পুরী বেড়াতে গিয়েছিলেন। তবে সামুদ্রিক ঝড় হুদহুদের কারণে সে বার ভালভাবে বেড়ানো হয়নি। পুরপ্রধান দেবপ্রসাদবাবু জানান, এর আগেও বিভিন্ন সময় পুরসভার অর্থে কাউন্সিলররা বেড়াতে গিয়েছেন।   

শ্রমিক সম্মেলন। হ্যাচারি শ্রমিকদের এক সম্মেলন হল মেদিনীপুর সদরের বাগডুবিতে। রবিবার তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠন আইএনটিটিইউসি অনুমোদিত হ্যাচারি শ্রমিকদের ইউনিয়নের এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ছিলেন আইএনটিটিইউসির জেলা সভাপতি দীনেন রায়। সম্মেলন শুরুর আগে এক মিছিলও হয়। ইউনিয়নের সদস্যরা এই মিছিলে ছিলেন।