• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মুখ্যমন্ত্রীর শুভেচ্ছা বার্তায় মানবের করোনাসুরনাশিনী

Mamata Banerjee's post
মুখ্যমন্ত্রীর পোস্ট।


মুখ্যমন্ত্রীর দৌলতে ভাইরাল হয়েছে ঝাড়গ্রাম শহরের ইয়ং ইলেভেনের ‘করোনাসুর নাশিনী’! প্রতিমার ছবি সমাজমাধ্যমে শুভেচ্ছাবার্তায় ব্যবহার করেছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

সোমবার সমাজমাধ্যমে নিজের পেজ থেকে ‘তৃতীয়ার শুভেচ্ছা’ জানিয়ে পোস্ট করেন মুখ্যমন্ত্রী। তাতে ইয়ং ইলেভেনের করোনাসুর নাশিনী মূর্তিটির ছবির সঙ্গে করজোড়ে নিজের ছবি পোস্ট করেছেন মমতা। এ বার অরণ্যশহরের বাছুরডোবা ইয়ং ইলেভেনের ৫৯ তম বর্ষের পুজো মণ্ডপে ছোট প্রতিমায় পুজো হচ্ছে। এ ছাড়াও বিশিষ্ট শিল্পী মানব বাগচীর তৈরি আর একটি প্রতিমা রাখা হয়েছে মণ্ডপে। সেটি করোনাসুর নাশিনী। দশ হাতে মাস্ক ও স্যানিটাইজ়ার, ইনজেকশন নিয়ে করোনাসুরকে বধ করছেন দেবী। চার ফুটের ওই প্রতিমায় অঙ্গসজ্জায় ব্যবহার করা হয়েছে জঙ্গলমহলের গামছা। 

গত ১৫ অক্টোবর নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী ইয়ং ইলেভেনের পুজোরও ভার্চুয়াল উদ্বোধন করেছিলেন। সূত্রের খবর, করোনাসুর নাশিনী মডেলটি মনে ধরে তাঁর। এর পরে ১৭ অক্টোবর দুপুরে জেলা প্রশাসনের এক আধিকারিক-সহ তিনজন এসে মূর্তিটির ছবি তুলে নিয়ে যান। এর পরে সমাজমাধ্যমে খোদ মুখ্যমন্ত্রী সেই ছবি পোস্ট করায় আপ্লুত পুজো কমিটির সম্পাদক ভিকি দে। তিনি বলেন, ‘‘এবার বিধিনিষেধে কাছ থেকে প্রতিমা দেখার উপায় নেই দর্শকদের। মানববাবুর তৈরি এত সুন্দর করোনাসুর নাশিনী কাছ থেকে কেউ দেখতে পাবেন না বলে আমাদের মনে আক্ষেপ ছিল। মুখ্যমন্ত্রী মূর্তির ছবি পোস্ট করায় আমরা খুবই খুশি হয়েছি। ৪৩ হাজার মানুষ ইতিমধ্যে মুখ্যমন্ত্রীর ফেসবুক পোস্টে ওই ছবি দেখে লাইক করেছেন। দু’হাজারেরও বেশি শেয়ার হয়েছে।’’ 

শিল্পী মানব বাগচী বলেন, ‘‘বহুদিন ধরে শিল্পচর্চা করছি। আমার শিল্পকর্মে সব সময়ই সমাজ সচেতনতার একটা বার্তা দিতে চাই। সেই উদ্দেশ্যেই করোনাসুর নাশিনী তৈরি করেছি। খুবই ভাল লাগছে।’’ প্রতিমাটি তৈরির কাজে মানবকে সাহায্য করেছেন তাঁর ছেলে সঙ্গীতশিল্পী তাতান। তাতান বলছেন, ‘‘মুখ্যমন্ত্রীর পোস্টে অসংখ্য মানুষ প্রতিমার ছবি দেখেছেন, শেয়ার করেছেন। তবে প্রতিমাটি যে বাবার তৈরি সেটা লেখা থাকলে আরও ভাল লাগত।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন