• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘স্টোন বোল্ডার’ দুর্নীতি, পদক্ষেপের নির্দেশ সচিবের

Kolaghat Thermal Power Plant
কোলাঘাট তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র।

এর আগে তাঁর বিরুদ্ধে কাটমানির পোস্টার পড়েছিল। এ বার কোলাঘাট তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে পরিত্যক্ত ‘স্টোন বোল্ডার) নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠল তাঁর বিরুদ্ধে।

তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের এক হাজার লরি পরিত্যক্ত ‘স্টোন বোল্ডার’ নিয়ে শহিদ মাতঙ্গিনী পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি তথা তৃণমূল নেতা দিবাকর জানার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ করে জেলা প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানিয়েছিলেন পঞ্চায়েত সমিতির খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ তথা আরেক তৃণমূল নেতা জয়দেব বর্মন। কয়েক মাস আগে ওই অভিযোগ ঘিরে শোরগোল পড়েছিল জেলার রাজনৈতিক মহলে। জয়দেব অভিযোগ করেন, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতির ক্ষমতার অপব্যবহার করে রাস্তা সংস্কারের জন্য তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে ওই ‘স্টোন বোল্ডার’ নিয়েছিলেন দিবাকর। কিন্তু তা দিয়ে কোনও কাজই করা হয়নি। এবিষয়ে পঞ্চায়েত সমিতিতে কোনও আলোচনা করা হয়নি। যদিও জয়দেবের ওই অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন দিবাকর।

দিবাকরের দাবি, ওই স্টোন বোল্ডার ব্যবহার করা হয়েছে। কিন্তু জেলাপ্রশাসনের কাছে শুধু অভিযোগ জানিয়েই ক্ষান্ত হননি জয়দেব। গত ১৩ নভেম্বর তিনি রাজ্যের বিদ্যুৎ মন্ত্রী ও বিদ্যুৎ দফতরের অতিরিক্ত মুখ্যসচিবের কাছেও এবিষয়ে অভিযোগ জানান। ওই অভিযোগের পর বিদ্যুৎ দফতরের যুগ্ম-সচিব গত ৫ ডিসেম্বর রাজ্য বিদ্যুৎ উন্নয়ন নিগমের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টরকে চিঠি দিয়ে এই বিষয়ে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে বলেন। সেইসঙ্গে অভিযোগকারীকেও তা জানাতে বলেন। যুগ্মসচিবের ওই চিঠি পেয়েছে রাজ্য ভিজিল্যান্স কমিশন (এডিজি এবং আইজি, রাজ্য পুলিশ)। সোমবার ওই চিঠি হাতে পেয়েছেন জয়দেবও। আর তারপরই কয়েক মাস আগে দিবাকরের বিরুদ্ধে তোলা ওই অভিযোগ নিয়ে ফের তোলপাড় শুরু হয়েছে।

জয়দেবের অভিযোগ, ‘‘পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি হিসেবে দিবাকর কোলাঘাট তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ১০০০ লরি ‘স্টোন বোল্ডার’ নিয়েছিলেন ব্লক এলাকার রাস্তার উন্নয়নের জন্য। কিন্তু এই নিয়ে পঞ্চায়েত সমিতিতে কোনও আলোচনা হয়নি এবং ওই ‘স্টোন বোল্ডার’ রাস্তার কাজে ব্যবহারও করা হয়নি। সরকারি সম্পত্তি নিয়ে দুর্নীতি বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে বিদ্যুৎমন্ত্রী ও দফতরের অতিরিক্ত মুখ্য সচিবের কাছে অভিযোগ জানাই। বিদ্যুৎ দফতর এ বার উপযুক্ত পদক্ষেপ করবে আশা করছি।’’

এ প্রসঙ্গে দিবাকর বলেন, ‘‘তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ‘স্টোন বোল্ডার’ নিয়ম মেনেই ব্যবহার করা হয়েছে। এবিষয়ে যা জানানোর প্রশাসনকে আগেই জানিয়েছি। রাজনৈতিক শত্রুতার জন্যই আমার বিরুদ্ধে এমন মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। ওই অভিযোগের সারবত্তা নেই।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন