আজ শুরু মনোনয়ন, নজরে সুরক্ষা
প্রথম থেকেই অবশ্য এমন অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। লোকসভা ভোটের মুখে এক বছর আগের পঞ্চায়েতের ভোটের সেই ছবিটা অবশ্য এবার উধাও।
EC

প্রতীকী ছবি।

এক বছর আগে পঞ্চায়েত ভোটের স্মৃতি এখনও দগদগে। জেলা প্রশাসনিক অফিসের সামনে মঞ্চ বেঁধে রাজ্যের শাসকদলের কর্মী-সমর্থকদের দাপাদাপিতে মনোনয়ন জমা দিতে এসে তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে ফিরে যেতে হয়েছিল বিরোধী দলের প্রার্থীদের। যা এ বার জেলায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে প্রচারে ভোটের অন্যতম প্রধান হাতিয়ার বিরোধীদের।

প্রথম থেকেই অবশ্য এমন অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। লোকসভা ভোটের মুখে এক বছর আগের পঞ্চায়েতের ভোটের সেই ছবিটা অবশ্য এবার উধাও। আগামী ১২ মে জেলার তমলুক ও কাঁথি লোকসভা কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ। তার জন্য মঙ্গলবার থেকে প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র জমা নেওয়া শুরু হচ্ছে। তার আগেই পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসনিক অফিস চত্বর কার্যত দুর্গের চেহারা নিয়েছে। জেলা প্রশাসনিক অফিসের সামনে হলদিয়া-মেচেদা রাজ্য সড়কের দুই লেনের মাঝে ডিভাইডারে বসেছে বাঁশের উঁচু ব্যারিকেড। গাড়ি সহ বিভিন্ন যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করতে প্রশাসনিক অফিসের কিছু দূরে বসানো হয়েছে চেকপোস্ট।

জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, মনোনয়ন জমা দিতে আসা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীর সঙ্গে অতিরিক্ত সংখ্যক কর্মী-সমর্থক প্রশাসনিক অফিস চত্বরে ঢোকা বন্ধ করতে এবার সড়কে যানবাহনের যাতায়াত নিয়ন্ত্রণ করা হবে। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় জেলা প্রশাসনিক অফিসের কাছে সড়কের একটি লেনে গাড়ি চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। অন্য লেনে গাড়ি চলাচল করলেও প্রার্থীরা মনোনয়ন জমা দিতে যাওয়ার জন্য সর্বাধিক তিনটি গাড়ি নিয়ে প্রশাসনিক অফিসের চত্বরে ঢুকতে পারবেন। মনোনয়ন জমা দেওয়ার জন্য প্রশাসনিক আধিকারিকের দফতরে প্রার্থী ও তাঁর সঙ্গে সর্বাধিক চারজন ঢুকতে পারবেন। সকাল ১১ টা থেকে বিকেল ৩ টা পর্যন্ত  মনোনয়ন জমার কাজ চলবে। আগামী ২৩ মে পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমা নেওয়া হবে।

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

জেলাশাসক পার্থ ঘোষ বলেন, ‘‘মঙ্গলবার থেকে প্রার্থীপদের জন্য মনোনয়ন জমা নেওয়ার কাজ শুরু হবে। মনোনয়ন জমা নির্বিঘ্নে শেষ করতে প্রশাসনিক অফিসের কাছে সড়কে গাড়ি চলাচল কিছুটা নিয়ন্ত্রণ করা হবে। মনোনয়ন জমা দিতে আসা প্রার্থীদের সঙ্গে কতগুলি গাড়ি রাখা যাবে, কতজন থাকতে পারবেন নির্বাচন কমিশনের তরফে তাও নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে।’’ জেলা পুলিশ সূত্রে খবর, মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় জেলা প্রশাসনিক অফিস থেকে ১০০ মিটার এলাকায় কোনওরকম জমায়েত করতে দেওয়া হবে না। এর জন্য জেলা প্রশাসনিক অফিস থেকে ১০০ মিটার দূরে সড়কে বাঁশের অস্থায়ী চেকপোষ্ট তৈরি করা হয়েছে। প্রশাসনিক অফিস চত্বরে নিরপত্তার জন্য বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে।

কংগ্রেস সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রথমদিনেই মনোনয়ন জমা দেবেন তমলুক লোকসভা কেন্দ্রে তাঁদের দলীয় প্রার্থী লক্ষ্মণ শেঠ। ঠিক হয়েছে, মঙ্গলবার সকালে তমলুক শহরে বর্গভীমা মন্দিরে পুজো দেওয়ার পর হাসপাতাল মোড় থেকে দলের কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে পদযাত্রা করে জেলা প্রশাসনিক দফতরে মনোনয়ন জমা দেবেন তিনি। এ ছাড়া প্রথমদিন মনোনয়ন জমা দেওয়ার কথা, তমলুক কেন্দ্রে এসইউসি দলের প্রার্থী মধুসূদন বেরা ও কাঁথি লোকসভার প্রার্থী মানস প্রধানের।

২০১৪ লোকসভা নির্বাচনের ফল

  • সকলকে বলব ইভিএম পাহারা দিন। যাতে একটিও ইভিএম বদল না হয়।

  • author
    মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৃণমূলনেত্রী

আপনার মত