• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বাম বন্ধুত্ব মনে রাখার কথা মানসের গলায়

আগেই বাম-কংগ্রেস জোট নিয়ে সাধারণ মানুষের ধোঁয়াশা কাটাতে তৎপর হয়েছেন কংগ্রেস প্রার্থী মানস ভুঁইয়া। এ বার বাম ভোটারদের ‘হাত’ চিহ্ন চিনিয়ে দেওয়ার কথা বললেন মানসবাবু।

বৃহস্পতিবার সবংয়ের দেভোগ গ্রাম থেকে মিছিল শুরু করেন মানসবাবু। সভার মাঝেই পথসভাও করেন তিনি। ভিসিণ্ডিপুরের পথসভায় মানসবাবু বলেন, ‘‘কাস্তে-হাতুড়ি-তারা চিহ্নে ‘যাঁরা এতদিন ভোট দিয়েছেন, তাঁরা এ বার ওই প্রতীক দেখতে না পেয়ে ভুল করতে পারেন।’’ বাম কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘‘বামপন্থী বন্ধুদের কাছে হাতজোড় করে অনুরোধ করছি,  মানুষকে হাত চিহ্ন চিনিয়ে দিন।” মানসবাবুর আবেদনে সাড়া দিয়ে সিপিএমের পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা কমিটির সদস্য অমলেশ বসু বলেন, “বাম কর্মীদের মানুষের বাড়ি-বাড়ি গিয়ে কী কারণে এই জোট তা স্পষ্ট করে বলতে বলব। সেই সঙ্গে এ বার হাতচিহ্নে ভোট দেওয়ার আবেদন করার কথাও বলব।”   

এ দিন মিছিলে পা মেলান সিপিএমের জেলা কমিটির সদস্য অমলেশবাবু, সিপিএমের জোনাল সম্পাদক চন্দন গুছাইত, কংগ্রেসের ব্লক সাধারণ সম্পাদক আবু কালাম বক্স প্রমুখ। দেভোগ থেকে উচিতপুর, ফাকুরপাড়া, খড়পোড়া হয়ে মিছিল পৌঁছয় ভিসিণ্ডিপুরে। সেখানে এক পথসভা হয়। এরপরে ফের মানসবাবুর নিজের গ্রাম ভিগনি নিশ্চিন্তিপুর থেকে বাদলপুরে পদযাত্রা শেষ হয়। এ দিন মানসবাবু বলেন, ‘‘যতদিন বেঁচে থাকব এই বন্ধুত্ব ভুলব না। আমি রাজনীতি ও পতাকার রং দেখি না। আমি সবংয়ের বাসিন্দা। এটাই আমার পরিচয়।”

তৃণমূল ও বিজেপিকে এ দিন একযোগে আক্রমণ করেন মানসবাবু। এ দিন বাম নেতা অমলেশবাবু বলেন, “কংগ্রেসের সঙ্গে কয়েকটি জায়গায় যে মতবিরোধ ছিল তা এখনও রয়েছে। কিন্তু রাজ্যে গণতান্ত্রিক ও ধর্মনিরপেক্ষ পরিবেশ তৈরি করতে আমরা কংগ্রেসকে সঙ্গে চেয়েছিলাম। সেই ডাকে কংগ্রেস সাড়া দিয়েছে।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন