• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দিলীপের অনুষ্ঠানে থাকছেন না সিন্টু, আঁচ ‘গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে’র  

1
দিলীপ ঘোষ। ফাইল চিত্র।

দ্বিতীয়বার দলের রাজ্য সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর আজ, শনিবার পাঁশকুড়ায় আসছেন বিজেপির নেতা দিলীপ ঘোষ। কিন্তু তার আগেই প্রকাশ্যে এল দলের গোষ্ঠীকোন্দল। রাজ্য সভাপতির কর্মসূচিতে থাকছেন না পাঁশকুড়ার বিজেপি নেতা সিন্টু সেনাপতি। তমলুক সাংগঠনিক জেলা সভাপতি নবারুণ নায়েক তাঁকে এই কর্মসূচি বিষয় কোনও খবর দেননি, তাই তিনি থাকবেন না বলে জানিয়েছেন সিন্টু।
পাঁশকুড়ায় বিজেপি নেতা সিন্টু সেনাপতির গোষ্ঠীর সঙ্গে জেলবন্দি বিজেপি নেতা আনিসুর রহমানের গোষ্ঠীকোন্দল কারও অজানা নয়। আনিসুরের অনুগামীরা বিজেপির তমলুক সাংগঠনিক জেলা সভাপতি নবারুণ নায়েকের ঘনিষ্ঠ বলে খবর বিজেপির অন্দরে। নবারুণ জেলা সভাপতি হওয়ার পর একাধিকাবার পাঁশকুড়ায় দলীয় কর্মসূচিতে এলেও সেখানে দেখা যায়নি পাঁশকুড়া পুরসভার বিরোধী নেতা সিন্টু সেনাপতি ও তাঁর অনুগামীদের।

শনিবার দুপুর আড়াইটে নাগাদ তমলুকের হরিদাসপুর থেকে রোড -শো করে রঘুনাথবাড়ি রথতলায় আসার কথা দিলীপ ঘোষের। রথতলায় একটি পথসভা করবেন তিনি। সভায় প্রায় ১৫ হাজার লোকের জমায়েত হবে বলে দাবি নবারুণের। অথচ শুক্রবার সেই কর্মসূচির প্রস্তুতিতে দেখা গেল না সিন্টুকে। সিন্টুকে ফোন করা হলে তিনি বলেন, ‘‘আমাকে জেলা সাংগঠনিক (তমলুক) সভাপতি এই কর্মসূচির বিষয়ে কিছু বলেননি। তাই আমি শনিবার থাকছি না।’’ এই বিষয়ে নবারুণ বলেন, ‘‘আমি রাজ্য সভাপতির কর্মসূচি নিয়ে ব্যস্ত আছি। এই বিষয়ে কিছু বলার নেই।’’

এই পরিস্থিতে পাঁশকুড়ায় দলের রাজ্য সভাপতির প্রথম কর্মসূচি ঘিরে যে ভাবে দলের অন্দরের ‘বিভাজন’ সামনে চলে এল তা বিজেপির পক্ষে সুখকর হবে না বলে মত রাজনৈতিক মহলের। 
 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন