• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

করোনায় মৃত্যু আরও এক, আক্রান্ত ২০৫

mur
প্রতীকী ছবি

ফের করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হল জেলায়। বুধবার বিকেলে বহরমপুর মাতৃসদন করোনা হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়েছে। বছর পঁয়ত্রিশের মৃত ওই যুবকের বাড়ি ডোমকলের গড়াইমারি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। মৃত এই যুবককে নিয়ে জেলায় চারজন করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হল। নিয়ম মেনে বুধবার রাতে ওই যুবকের মৃতদেহ পরিবারের লোকজনের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনা আক্রান্তের মৃতদেহ যেভাবে কবর দেওয়া হয়, যে ভাবে করোনা আক্রান্তের মৃতদেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়ার নির্দেশ রয়েছে, সেই অনুযায়ী পদক্ষেপ করা হয়েছে।

সূত্রের খবর, মঙ্গলবার রাত ও বুধবার সন্ধ্যা মিলিয়ে জেলায় আরও চারজন করোনা আক্রান্ত হয়েছে। সব মিলিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হল ২০৫জন। তাঁদের মধ্যে ১৭৩ জন করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন। ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। বাড়ি ও হাসপাতাল মিলিয়ে জেলায় মোট ২৯জন করোনা আক্রান্ত চিকিৎসাধীন।

মুর্শিদাবাদের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক প্রশান্ত বিশ্বাস বলেন, ‘‘এ দিন এক করোনা যুবকের আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। অন্যদিকে লালগোলার একজন ও রঘুনাথগঞ্জ-১ ব্লকের দু’জনের করোনা পজ়িটিভ হয়েছে। তাঁদের চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা হচ্ছে।’’

জেলা স্বাস্থ্য ও মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল সূত্রের খবর, ডোমকলের ঘোড়ামারার ওই যুবক কলকাতায় এনআরএস মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে লিভারের রোগ নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় তাঁর লালারস সংগ্রহ করে পরীক্ষায় পাঠায়।

পরীক্ষা রিপোর্ট আসার আগেই গত ২০ জুন ওই যুবক হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান বলে অভিযোগ। সেখানে এনআরএস মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষ স্থানীয় থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করে।

সূত্রের খবর, অন্যদিকে মঙ্গলবার তাঁর করোনা পজ়িটিভ রিপোর্ট হাতে আসতেই এনআরএস কর্তৃপক্ষ বিষয়টি মুর্শিদাবাদ জেলা পুলিশকে জানায়। বুধবার ডোমকল থানার পুলিশ তাঁর বাড়িতে খোঁজ নিতে গিয়ে জানতে পারে, মঙ্গলবার দুপুরে ওই যুবক মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। বিষয়টি জানতে পেরে বুধবার পুলিশের পক্ষ থেকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে জানানো হয়। মুর্শিদাবাদ মেডিক্যালে ওই যুবকের খোঁজ শুরু হয়। তাঁকে খুঁজে বের করে বুধবার বিকেলে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে বহরমপুর মাতৃসদন করোনা হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করানো হয়। ভর্তি করার কিছু ক্ষণ পরে সেখানে তাঁর মৃত্যু হয়।

মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সুপার শর্মিলা মল্লিক বলেন, ‘‘লিভারে সমস্যা নিয়ে খুব খারাপ অবস্থায় মঙ্গলবার দুপুরে এখানে ভর্তি হন। বুধবার জানতে পারি এনআরএসে পরীক্ষায় তাঁর করোনা পজ়িটিভ হয়েছে। এর পরে তাঁকে করোনা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। কিন্তু শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ থাকায় তাঁর মৃত্যু হয়েছে।’’

মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল সূত্রের খবর, করোনা পজ়িটিভের বিষয়টি জানতে পারার পরে ওই যুবক মু্র্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের যে ওয়ার্ডে ভর্তি ছিলেন সেখান থেকে অন্য রোগীদের সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। ওই ওয়ার্ড স্যানিটাইজ় করা হয়েছে।

এ ছাড়া মৃতের সংস্পর্শে আসা রোগী, চিকিৎসক, নার্সদের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা হয়েছে। মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সুপার বলেন, ‘‘করোনা আক্রান্তের সংস্পর্শে এলে যা যা করনীয় তা করা হচ্ছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন