• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রান্না ফেলে বিকেলতক লাইনে

main
আধার-ভিড়। বৃহস্পতিবার ডোমকল ডাকঘরে। ছবি: সাফিউল্লা ইসলাম

লাইনটা চলে গিয়েছে পোস্ট অফিসের সামনের রাস্তা ঘেঁষে একেবারে ডোমকল জনকল্যাণ মাঠ পর্যন্ত। আঁকাবাঁকা সেই লাইনে হাজার ছয়েক মানুষ দাঁড়িয়ে। কিন্তু ডোমকল মুখ্য ডাকঘরের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, হাজার দুয়েক মানুষকে টোকেন দেওয়া হবে, আধার কার্ডের জন্য। ভিড় কি সে কথা শোনে? 

পোস্ট অফিসের সামনের রাস্তা এক সময় অবরুদ্ধ হয়ে পড়ল। এক বুক আশা নিয়ে ঠায় দাঁড়িয়ে থাকা বৃহস্পতিবারের সেই লাইন ভাঙল বেলা পড়ে আসতে। এ দিন থেকে ডোমকল মুখ্য ডাকঘরে নতুন আধার কার্ড তৈরি এবং সংশোধনের জন্য টোকেন বিতরণ শুরু হয়। পোস্ট অফিস এর পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, ২১০০ মানুষকে ওই টোকেন দেওয়া হবে। কিন্তু লাইন ততক্ষণে এঁকেবেঁকে প্রায় হাজার ছয়েক মানুষকে নিয়ে দাঁড়িয়ে। ফলে সকাল থেকেই ছিল বিশৃঙ্খলা। 

ডোমকলের মানিকনগর গ্রাম থেকে বাজারে এসেছিলেন মুর্শিদা বিবি। বাজারে এসেই তিনি জানতে পারেন, আধার কার্ডের টোকেন দেওয়া হচ্ছে পোস্ট অফিস থেকে। কাজ ফেলে দাঁড়িয়ে যান লাইনে। তিনি বলছেন, ‘‘চারিদিকে এনআরসি নিয়ে যা শুনছি তাতে বড় ভয় হচ্ছে। ছেলে দুটোর নামে ভুল আছে। বাজারে এসে জানতে পারলাম পোস্টঅফিস থেকে আধার কার্ড সংশোধন করার জন্য টোকেন দেওয়া হচ্ছে। দাঁড়িয়ে পড়লাম।’’ 

প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূর থেকে ডোমকল পোস্টঅফিসে এসেছেন ভগীরথপুর এলাকার সাগরা বিবি। তাঁর কথায়, ‘‘স্বামী বাড়িতে নেই, ভিন রাজ্যে কাজ করে। কাগজপত্র নিয়ে আমিই ছুটে বেড়াচ্ছি। রান্নাবান্না ফেলে ছুটে এসেছি পোস্টঅফিসে।’’ 

জেলার মুখ্য পোস্টমাস্টার সিদ্ধেশ্বর দত্ত বলেন, ‘‘অফিস খোলার আগে থেকেই ভিড়। শেষ পর্যন্ত কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা যে ঘটেনি এই ঢের।’’

ছবিটা প্রায় একইরকম বহরমপুর পোস্টঅফিসের সামনেও। আজিমগঞ্জ সাব- পোস্টঅফিসে নয়া আধার এবং সংশোধনের জন্য সকাল থেকেই ভিড়। অধিকাংশেরই দাবি, কার্ড ভুলে ভরা। এক সপ্তাহ আগেই জানানো হয়েছিল, বৃহস্পতিবার নাম লেখানো হবে। এ দিন ৫,২০৮ জনের কার্ড সংশোধন করা হয় বলে পোস্টঅফিস সূত্রে জানানো হয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন