সুস্বাদু খাবার। এবার সেই ‘মোমো’ নিয়েই আতঙ্ক তৈরি হয়েছে বেলডাঙায়। বছরখানেক আগে ‘ব্লু হোয়েল গেম’ নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছিল। ওই গেমে আসক্ত হয়ে বেশ কয়েক জন আত্মহত্যা করে। ‘মোমো চ্যালেঞ্জ’ নামে একই ধরনের একটি খেলা ফের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়েছে। কার্শিয়াঙে এক কিশোরের মৃত্যুতে প্রাথমিক ভাবে ‘মোমো চ্যালেঞ্জ’ যোগ মিলেছে। বেলডাঙার একাদশ শ্রেণির এক ছাত্র এবং এক আঁকার শিক্ষকের দাবি, সম্প্রতি তাঁদের মোবাইলে ওই গেমের লিঙ্ক আসে। এক সপ্তাহ ধরে একটি অচেনা নম্বর থেকে তাঁদের ওই খেলায় অংশ নিতে প্ররোচনা দেওয়া হচ্ছিল। শুক্রবার দু’জনে পুলিশকে বিষয়টি জানান। জানা গিয়েছে, অ্যান্ড্রয়েড ফোনে প্রথমে একটি ‘মেসেজ’ আসছে। কয়েকটি সংখ্যার একটি নম্বর দেখা যাচ্ছে। শুরুতে রয়েছে প্লাস ওয়ান। সঙ্গে একটি বাচ্চা মেয়ের ছবি। মেয়েটির চোখ দু’টি কোটর থেকে ঠেলে বেরিয়ে আসছে। লম্বাটে মাথা। ঘন কালো চুল দু’ কানের পাশ দিয়ে অনেকটা নীচে পর্যন্ত নেমে গিয়েছে। মাথার সামনে কিছুটা টাক। সঙ্গে লেখা, ‘হেই আই অ্যাম মোমো’।

স্থানীয় থানার ওসি সমিত তালুকদারের কথায়,  ‘‘গত এক সপ্তাহে এলাকার স্কুলগুলিতে গিয়ে ছাত্রছাত্রীদের সাইবার অপরাধ নিয়ে সচেতন করেছি আমরা। মোমো গেম নিয়েও সতর্ক করা হয়েছে। দু’টি নম্বর মিলেছে। সেগুলি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে সবাইকেই আমরা অনুরোধ করছি এমন প্ররোচনায় পা না দিতে।’’