পেশায় রাজমিস্ত্রি, কাজ বন্ধ করে কান্দি ব্লকে যাওয়ার সুযোগ হয় না। এক দিন কাজ বন্ধ মানেই ৪০০ টাকা ক্ষতি। তাই যে দিন কাজ থাকবে না সেই দিন কান্দি গিয়ে রেশন কার্ড করতে যাওয়া মনস্থির করি। আমার দুর্ভাগ্য যে, ওই দিনই গন্ডগোল হল। সারে ১১টা নাগাদ কান্দি বাসস্ট্যান্ডে নেমে সেখান থেকে একটি টুকটুক ধরে ব্লক অফিসে পৌঁছই। ব্লক অফিস চত্বরে তখন প্রচুর লোক। আমি ভেবেছিলাম, সরকারি অফিসে এমন লোকজন আসে। এমন সময় দেখি ব্লক অফিস চত্বরে যারা ভিড় করে দাঁড়িয়ে ছিল তারাই রে রে করে তেড়ে আসছে। শহরের রাস্তাঘাটের সঙ্গে আমার পরিচয় নেই। আমি একটি রাস্তা দিয়ে ছুটে পালাতে যাই। কিন্তু কে জানতো ওই রাস্তাতেই আমার বিপদ দাঁড়িয়ে আছে! দেখি, উল্টো দিক থেকে অন্য একদল যুবক ব্যাগে বোমা নিয়ে তেড়ে আসছে বিডিও অফিসের দিকে। আমি দিশেহারা হয়ে পড়ি। দু’দলের মাঝে পড়ে যাই। সেই সময় বিডিও অফিস চত্বরে বেশ কয়েকটি বোমা পড়ল। গুলি চালানোর শব্দও শুনতে পেলাম। আমি পালানোর চেষ্টা করছি সেই সময় বাঁট দিয়ে এক যুবক আমার ঘাড়ে সজোরে আঘাত করে। তাতেই আমি মাটিতে লুটিয়ে পড়েছিলাম। তখন আমি ভেবেই নিয়েছিলাম আজ আমি আর প্রাণে বাঁচব না। দেখি গোটা পাঁচেক পুলিশকর্মী এলাকা ছেড়ে পালাচ্ছে। আমি রাস্তার মাঝেই পড়ে আছি। দু’দিক থেকে ইটবৃষ্টি চলছে আর আমি একা। পরে ক্যামারে নিয়ে ছবি তুলছিল কোনও এক সাংবাদিক। তিনিই আমাকে ওখান থেকে তুলে অন্যত্র সরিয়ে দেন।