• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পাহাড়ি যুদ্ধ নামল গ্রামে

eci

Advertisement

ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণা হতেই পাল্টে গেল আলোচনার বিষয়!

পাড়ার মাচায়, চায়ের দোকানে গত কয়েক দিন ধরে আড্ডার যে বিষয় ছিল, রবিবার সন্ধ্যায় ভোটের দিন ঘোষণা হতেই মুহূর্তের মধ্যে সবকিছু ওলট-পালট হয়ে গেল!  ভারত-পাক যুদ্ধ পরিস্থিতি থেকে বালাকোটে জঙ্গির মৃত্যুর হিসেব নিয়ে চলছিল চুলচেরা বিশ্লেষণ। এমনকি রাফাল যুদ্ধবিমানের দুর্নীতির প্রসঙ্গ বদলে এখন তরজা চলছে ভোটরাজনীতি নিয়ে। কেউ কেউ পঞ্চায়েত ভোটের স্মৃতি টেনে কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিয়ে আশার কথাও শোনাচ্ছেন। 

লালবাগ রোড স্টেশন লাগোয়া আমির শেখের চায়ের দোকানে রবিবার দুপুর পর্যন্ত একের পর এক চা উড়ে গিয়েছে পুলওয়ামা কাণ্ড থেকে রাফাল বিমানের দুর্নীতির তোড়ে। জেলার তিনটি লোকসভা কেন্দ্রে কারা প্রার্থী হতে পারেন, চায়ের আড্ডায় চলছে দীপঙ্কর মণ্ডল, সেলিম শেখদের আলোচনা। দোকান মালিক আমির শেখ বলছেন, ‘‘এখন ভোট এসে গিয়েছে। স্বভাবতই গত কয়েক দিনের আলোচনা চলে গিয়েছে পিছনের সারিতে।’’

ডোমকলের পাড়ার মাচা থেকে মোড়ের মাথার জটলায় যে যুদ্ধের আবহাওয়া ছিল, তা এখন নেই। ডোমকল ব্রিজ মোড়ের এক চায়ের দোকান মালিক বলছেন, ‘‘গত কয়েক দিন ধরে আমার দোকান যেন যুদ্ধক্ষেত্র হয়ে উঠেছিল। এমনকি তা নিয়ে দু’পক্ষের তুমুল বচসা থামাতে গরম চা এগিয়ে ঠাণ্ডা করতে হয়েছে।’’

এ দিকে ভোটের দিন ঘোষণা হতেই বহরমপুর-ডোমকল-জঙ্গিপুর এলাকায় যেমন শুরু হয়ে গিয়েছে দেওয়াল লিখন, তেমনি জঙ্গিপুর বাসস্ট্যান্ডের কাছে টিনের চাল দেওয়া কংগ্রেসের কার্যালয় এ দিন সকাল থেকেই সেখানে ঝাঁট দিয়ে পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে।

ভোটের দামামা বাজতেই এ দিন সকাল আড্ডার মেজাজ বদলে গিয়েছে আমজনতার। আকাশের যুদ্ধ এখন নেমে এসেছে মাটির যুদ্ধে। রাজনীতির যাবতীয় আঁক কষতে ব্যস্ত তাঁরা। কোন প্রার্থী, কোথায় জিতবেন, তা নিয়ে চলছে চায়ে পে চর্চা।

যা শুনে ডোমকলের চায়ের দোকান মালিক কালু শেখের গলায় বিরক্তি। বলছেন, ‘‘এত দিন যুদ্ধের গল্প শুনে কান ঝালাপালা হয়ে গিয়েছিল। ওই গল্প শুনতে গিয়ে চায়ের গ্লাসে চিনি দিতেও ভুল হয়ে যেত। এবার শুরু হল ভোটের কচকচানি।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন