• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দুই সন্তান  নিয়ে নিখোঁজ মহিলা

Woman missing with two child
প্রতীকী চিত্র

দুই সন্তানকে নিয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে গিয়েছেন মা। গত দশ দিন ধরে নিখোঁজ নদিয়ার চাপড়ার বাসিন্দা এক মহিলা। এই ঘটনায় চাপড়া থানায় একটি মিসিং ডায়েরি হয়েছে। এখনও পর্যন্ত খোঁজ মেলেনি ওই মহিলা এবং তাঁর দুই ছেলে-মেয়ের। 

নিখোঁজ মহিলার পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, তাঁর নাম তাপসী সাঁতরা। তিনি চাপড়া থানার কলিঙ্গ পঞ্চায়েতের পলিয়ানপুর এলাকার বাসিন্দা। তাঁর স্বামী অনুপ সাঁতরা পেশায় গাড়িচালক। বছর দশেক আগে ওই দম্পতির বিয়ে হয়। বর্তমানে ওই দম্পতির একটি সাত বছরের ছেলে এবং চার বছরের মেয়ে আছে। তাপসির বাবা ভদ্রেশ্বর এলাকায় একটি জুটমিলে কাজ করতেন। তাপসির বিয়ের আগেই তিনি মারা যান। কিছু দিন আগে তাপসির মা-ও মারা যান। বর্তমানে ভদ্রেশ্বরের বাড়িতে কেউ থাকতেন না। তবে ব্যাঙ্কের কিছু কাজকর্ম মিটাতে তাপসিকে ভদ্রেশ্বর যেতে হবে, এমনটাই তিনি পরিবারকে জানিয়েছিলেন। 

গত ৫ ফেব্রুয়ারি ছেলেমেয়েকে সঙ্গে নিয়ে সকাল সাড়ে এগারোটা নাগাদ তিনি ভদ্রেশ্বরের উদ্দেশে রওনা দেন। তাঁর স্বামী অনুপ সেই সময়ে বাড়ি ছিলেন না। পরিবারের অন্যদের জানিয়ে বাড়ি থেকে বেরোন তাপসি। ভদ্রেশ্বর এলাকায় তাঁর কাকা থাকেন। কিন্তু এর পরে তাপসি আর বাড়ি ফেরেননি। ৫ ফেব্রুয়ারি রাতে তাপসির ফোনে একাধিক বার ফোন করেন তাঁর স্বামী। যদিও সেই ফোন ধরেনি কেউ। পরে মোবাইল সুইচ অফ হয়ে যায়। এর পরে বিভিন্ন জায়গায় স্ত্রী এবং সন্তানদের সন্ধানে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন অনুপ। তবে স্ত্রী ও সন্তানদের কোনও হদিস পাননি তিনি। ভদ্রেশ্বরে ওই মহিলার কাকার বাড়িতে খোঁজ নিয়ে তাঁরা জানতে পারেন, সেখানেও যাননি তাপসি। 

অনুপ এ দিন বলেন, “বাড়ি থেকে বেরনোর পর আর স্ত্রী, দুই সন্তানের কোনও খোঁজ পাচ্ছি না। ফোনও সুইচ অফ। যেখানে যেখানে পরিচিত আছে, সেখানে সেখানে খোঁজ নিয়েছি। কোথায় গেল বুঝতে পারছি না। খুব দুশ্চিন্তায় আছি।”

এর পরেই ১০ ফেব্রুয়ারি অনুপের বাবা কার্তিক সাঁতরা চাপড়া থানায়  একটি নিখোঁজ ডায়েরি করেন। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন