• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিজেপিতে বিক্ষোভ, লক্ষ্য জেলা

Conflict of interest between BJP employees in Alipurduar
বিরোধ: বিজেপির জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ। রবিবার আলিপুরদুয়ারের হাসিমারায়। নিজস্ব চিত্র

বিজেপির জেলা সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মার অপসারণ চেয়ে এবার ময়দানে নামলেন আলিপুরদুয়ার বিজেপির নেতা-কর্মীদের একাংশ। 

রবিবার দুপুরে হাসিমারার সাতালি মাঠে সভা করেন দলের নেতা-কর্মীরা। সেখানে জেলার কুমারগ্রাম, শামুকতলা-সহ বিভিন্ন এলাকা থেকে বিজেপি কর্মীরা এসেছিলেন। দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি জেলায় বিজেপির মণ্ডল কমিটি গঠন হয়। অভিযোগ, পুরনো মণ্ডল সভাপতিদের কয়েকজনকে কোনও কারণ ছাড়াই বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। তারপরেই বিভিন্ন এলাকা থেকে জেলা সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ-সহ জেলা নেতাদের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন দলীয় কর্মীদের বড় একটি অংশ। 

 সম্প্রতি আলিপুরদুয়ার শহরে বিজেপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে ৪ নম্বর মণ্ডলের সভাপতি বদল নিয়ে বিক্ষোভ দেখান শামুকতলা এলাকার নেতা-কর্মীরা। তবে এ দিন হাসিমারার প্রকাশ্য বৈঠকে জেলা সভাপতির অপসারণের দাবি ওঠায় চিন্তার ভাঁজ  বিজেপি নেতৃত্বের কপালে। ২০২১ সালের বিধানসভা ভোটের আগে নাগরিক পঞ্জি নিয়ে রীতিমতো ব্যাকফুটে রয়েছেন বিজেপি নেতৃত্ব। সেখানে দলের অভ্যন্তরের কোন্দল বিজেপি নেতাদের সামনে নতুন সমস্যা তৈরি করল বলে মনে করছে দলের একাংশ। যাঁর বিরুদ্ধে অপসারণের দাবি, সেই জেলা সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মা অবশ্য এ দিন জয়গাঁয় নিজের বাড়িতেই ছিলেন। তিনি অবশ্য নেতা-কর্মীদের এহেন দাবি নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি। তিনি বলেন, “বিষয়টি নিয়ে রাজ্য নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনা করব।’’

 কালচিনির ৯ নম্বর মণ্ডল কমিটির প্রাক্তন মণ্ডল সভাপতি সন্দীপ এক্কা জানান, কোনও কারণ ছাড়াই তাঁকে বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। তা নিয়ে এলাকায় বিজেপি কর্মীদের বড় অংশ ক্ষুদ্ধ। 

৯ নম্বর মণ্ডলের সাধারণ সম্পাদক অর্জুন বিশ্বকর্মা জানান, জেলা সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ একতরফা ভাবে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন কয়েকজন নেতার সঙ্গে মিলে। এলাকার নেতা-কর্মীদের সঙ্গে আলোচনা ছাড়াই ‘তুঘলকি’ কায়দায় কমিটি গড়া হচ্ছে। 

সাতালি মাঠে শামুকতলা থেকে আসা বিজেপির শক্তি প্রমুখ জগবন্ধু বিশ্বাস জানান, একতরফা ভাবে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন গঙ্গাপ্রসাদ।  ৯ নম্বর মণ্ডলের সভাপতি সন্দীপ এক্কাকে সরানো হয়েছে। তাঁর দাবি, গঙ্গাপ্রসাদ অন্যায় ভাবে মণ্ডল সভাপতিদের সরিয়ে দিচ্ছেন। পুনরায় ৪ নম্বর মণ্ডল সভাপতি সজল দে ও ৯ নম্বর মণ্ডল সন্দীপকে  পদে ফিরিয়ে আনা হোক। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন