তৃণমূলের দ্বন্দ্ব কাজে লাগিয়ে জয় নিশীথের
তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের একটি বড় অংশের ধারণা, পরেশ নিজেই পরাজয়ের একটি বড় কারণ।
nishit pramanik

বিজেপি প্রার্থী নিশীথ প্রামাণিক। ছবি: সংগৃহীত।

বিজেপি প্রার্থী নিশীথ প্রামাণিক আগেই বলেছিলেন, প্রথম দিকের কয়েক রাউন্ড তাঁরা পিছিয়ে থাকবেন। তারপরে থেকে এগোতে শুরু করবেন। 

ঠিক তাই হল। 

সকাল থেকেই আকাশের মুখ ভার ছিল। মাঝে মধ্যেই দুই এক ফোঁটা বৃষ্টি হচ্ছিল। তার মধ্যেই গণনাকেন্দ্র থেকে পরিশ্রান্ত, ক্লান্ত পরেশ অধিকারী বেরিয়ে এলেন। বললেন, ‘‘এমনটা হওয়ার কথা ছিল না। শুরুতে কিন্তু আমরাই এগিয়ে ছিলাম। কেন এমন হল, তা খতিয়ে দেখতে হবে।’’ 

তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের একটি বড় অংশের ধারণা, পরেশ নিজেই পরাজয়ের একটি বড় কারণ। ফরওয়ার্ড ব্লক থেকে এসে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পরেই তাঁকে লোকসভায় প্রার্থী করে দেওয়াটা অনেকেই ভাল মনে নিতে পারেননি। শাসক দলে যোগদানের পরেই তাঁর মেয়ের চাকরি নিয়ে রাজ্য জুড়ে হইচই হয়। সেই ক্ষোভও ভোটের বাক্সে পড়েছে বলে মনে করছে তৃণমূল। যেমন তৃণমূল নেতারা জানাচ্ছেন, আগের সাংসদ পার্থপ্রতিম রায়ের সঙ্গে দলের জেলা সভাপতি রবীন্দ্রনাথ ঘোষের বিবাদও সাধারণ মানুষ ভাল চোখে দেখেননি। সকাল থেকেই গণনাকেন্দ্রের অদূরের ক্যাম্পে বসেছিলেন রবীন্দ্রনাথ। সকাল থেকেই তার চোখেমুখে উদ্বেগ ছিল স্পষ্ট। তাঁর কথায়, ‘‘নির্বাচনে হারজিত হয়। তবে আমাদের জেতার কথা ছিল।’’ তিনিও বলেন, ‘‘কোথায় কী হল, তা দেখা হবে।’’

তত ক্ষণে খবর আসতে শুরু করেছে, বামেদের ভোট ব্যাঙ্কে ধস নামাও তৃণমূলের হারের বড় কারণ। কোচবিহার, মাথাভাঙা এবং দিনহাটা, তিনটি শহরেই ব্যাপক ভাবে লিড নিয়েছে বিজেপি। দিনহাটা বিধানসভা কেন্দ্র, মাথাভাঙা, কোচবিহার উত্তর এবং দক্ষিণেও বিজেপির লিড রয়েছে।

পদ্মশিবির তখন উন্মাদনায় ভাসছে। গেরুয়া আবির মেখে উল্লাসে ফেটে পরা নিশীথ বলেন, ‘‘অপেক্ষায় ছিলাম। কোচবিহারের মানুষকে আমার প্রণাম। তাদের জন্যেই কাজ করব।’’ তৃণমূলের কিছু নেতাই বলছেন, বিজেপি অনেক বেশি অঙ্ক কষে লড়াই করেছে, তাই ঠিক যা বলেছিল, সে ভাবেই জিতেছে।

অঙ্কের সেই হিসেবে নিশীথ নিজেও একটি কারণ। একাধিক গোষ্ঠীতে বিভক্ত তৃণমূল শিবিরের একটি শক্তিশালী পক্ষ ছিল নিশীথের অনুগামীরা। দলের গোষ্ঠীগুলোর দ্বন্দ্ব তিনি খুব ভাল চেনেন। পঞ্চায়েত ভোটে তৃণমূলেই ছিলেন নিশীথ। তখন রবীন্দ্রনাথের বিরুদ্ধে গিয়ে নির্দল প্রার্থীকে দাঁড় করিয়েছিলেন। সেই নির্দলদের কাছে হেরেছিল তৃণমূলের প্রার্থীরা। তার পরেই নিশীথকে তৃণমূল থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

২০১৪ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত