• নিজস্ব সংবাদদাতা  
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

গুজরাত থেকে উদ্ধার ছাত্রী

1
প্রতীকী চিত্র।

Advertisement

২৬ দিন পরে ‘অপহৃত’ এক ছাত্রীকে গুজরাত থেকে উদ্ধার করল পুরুলিয়ার বরাবাজার থানার পুলিশ। ওই নাবালিকাকে অপহরণের অভিযোগে বরাবাজার থানা এলাকার বাসিন্দা টেম্পো সিং সর্দার নামে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, আজ, শুক্রবার ধৃতকে পুরুলিয়া আদালতে তোলা হবে। ওই নাবালিকাকে হোমে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, স্কুল যাতায়াতের পথে তেরো বছরের ওই ছাত্রীর সঙ্গে উনিশ বছরের টেম্পোর পরিচয় হয়। গত ১৭ নভেম্বর সকাল থেকে ওই ছাত্রীর খোঁজ মিলছিল না। চারদিকে খোঁজ করে সন্ধান না মেলায় ছাত্রীটির মা ২০ নভেম্বর বরাবাজার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। খোঁজখবর শুরুর পরে পুলিশ টেম্পোর নাম জানতে পারে। জানা যায়, সে গুজরাতে শ্রমিকের কাজ করে। তবে কোন জায়গায়, বাড়ির লোক তা জানাতে পারেননি।

ওই যুবকের সন্ধান পেতে গুজরাতের পুলিশের সহযোগিতা চায় জেলা পুলিশ। মোবাইলের ‘টাওয়ার লোকেশন’ ধরে শুরু হয় খোঁজ। জানা যায়, গুজরাতের কছ্‌ জেলার মুন্দ্রা শহরের এক বস্তিতে রয়েছে ওই যুবক। এর পরে ৭ ডিসেম্বর বরাবাজার থানার দুই আধিকারিক সজল পণ্ডা ও দেবকুমার চট্টরাজ গুজরাত রওনা হন। মুন্দ্রা শহরের ওই বস্তিতে খোঁজ করতেই স্থানীয়েরা জানান, খুব অল্পবয়সি এক বাঙালি দম্পতি রয়েছে সেখানে। তার পরে পুলিশ তাদের বৃহস্পতিবার বরাবাজারে আনে। 

জেলা ‘চাইল্ডলাইন’-এর দুই সদস্য তুষারকান্তি ত্রিপাঠী ও মনীষা নন্দী এ দিন বরাবাজার থানায় আসেন। তুষারকান্তিবাবু জানান, ‘চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটি’র নির্দেশে ওই ছাত্রীকে পুরুলিয়ার আনন্দমঠ হোমে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন