নিখোঁজ ডায়েরি করতে গিয়ে ঘণ্টা তিনেক বসিয়ে রাখার পরেও ফিরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ জানালেন ‘দিদিকে বলো’-র ফোন নম্বরে। শুক্রবার পুরুলিয়া মফস্‌সল থানার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তুলেছেন কাঁটাবেড়ার দুই ব্যক্তি। শেষে তাঁরা পুলিশ সুপারের অফিসে নিখোঁজের ডায়েরি করেন। জেলা পুলিশ সুপার আকাশ মাঘারিয়া বলেন, ‘‘তদন্ত হচ্ছে। অভিযোগ সত্যি হলে ডিউটি অফিসারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’’

কাঁটাবেড়া গ্রামের বছর ষাটের নিবারণ মাহাতো নামের এক বৃদ্ধ বুধবার থেকে নিখোঁজ। তাঁর ছেলে বিষ্ণুচরণ মাহাতোর দাবি, ‘‘দু’দিন ধরে খোঁজ করেও খবর না পেয়ে এ দিন বেলা ১২টায় থানায় ডায়েরি করাতে গিয়েছিলাম। ঘণ্টা তিনেক ধরে বসিয়ে রেখেও ডায়েরি নেয়নি।’’ তাঁর সঙ্গে ছিলেন গ্রামেরই বাসিন্দা বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদী সমিতির জেলা সম্পাদক মধসূদন মাহাতো। তাঁর অভিযোগ, ‘‘ডিউটি অফিসারের কথা মতো নিখোঁজের ১৪ কপি ছবি নিয়ে আসি। বেশ কিছুক্ষণ বসিয়ে রাখার পরে বলা হয়, মেজবাবু এলে ডায়েরি নেওয়া হবে। তিনি এসে বলেন, ‘কয়েকটা দিন দেখুন। ফিরে না এলে চার-পাঁচ দিন পরে ডায়েরি করবেন।’ 

অভিযোগ কেন নেওয়া হবে না? থানার অবশ্য দাবি, নিখোঁজ ব্যক্তি বৃন্দাবনে গিয়েছেন বলে তাঁর ছেলে থানায় জানান। সে জন্য অপেক্ষা করতে বলা হয়। যদিও পরিবারের দাবি, তাঁরা শুধু বৃন্দাবনে যাওয়ার একটা সম্ভাবনার কথা বলেছিলেন।