তৃণমূল পরিচালিত বিষ্ণুপুর পুরসভার বিরুদ্ধে একগুচ্ছ অভিযোগে পথে নামলেন বামেরা। বৃহস্পতিবার যদুভট্ট মঞ্চ লাগোয়া এলাকা থেকে মিছিল করে পুরসভা অভিযানের ডাক দিয়েছিল বামফ্রন্ট। এ দিন সকালে সে মিছিল শহর পরিক্রমা করে শেষ হয় পুরসভার সামনে। হয় বিক্ষোভ।

প্রাক্তন সিপিএম বিধায়ক স্বপন ঘোষের অভিযোগ, ‘‘শহরের রাসমঞ্চ সংলগ্ন এলাকা থেকে নতুন বাসস্ট্যাণ্ড—অনেক জায়গাতেই আবর্জনা উপচে পড়ছে। বিষ্ণুপুর পুরসভা একটি ‘ডাম্পিং গ্রাউন্ড’-ও করতে পারল না!’’ তাঁর আর এক অভিযোগ, বাড়িতে জলের সংযোগ দেওয়ার জন্য নতুন রাস্তা তৈরি করে আবার সেখানে খোঁড়াখুঁড়ি হচ্ছে। ‘হাউস ফর অল’ প্রকল্পে প্রাপক বাছাইয়ে দুর্নীতির অভিযোগ করেছেন সিপিএমের বিষ্ণুপুর এরিয়া কমিটির সম্পাদক বিশ্বজিৎ ঘোষ।

এ দিন ১৯টি দাবিতে বিষ্ণুপুর শহর বামফ্রন্টের পক্ষ থেকে পুরপ্রধান শ্যাম মুখোপাধ্যায়ের কাছে স্মারকলিপি জমা দেওয়া হয়।

 পুরপ্রধান জানান, দাবিগুলি খতিয়ে দেখা হবে। ‘হাউস ফর অল প্রকল্পে’ দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে পুরপ্রধানের প্রতিক্রিয়া, ‘‘হাউস ফর অল প্রকল্পে নাম তোলা বা বাদ দেওয়া—কোনওটাই আমাদের এক্তিয়ারে নেই। স্বজনপোষণের প্রমাণ দিলে ব্যবস্থা নেব।’’ তিনি জানান, শহরে জল সংযোগ দেওয়ার জন্য রাস্তা খুঁড়তে হচ্ছে ঠিকই, তবে ঠিকাদারেরা কাজ শেষ হওয়ার পরেই রাস্তা ঠিক করে দিচ্ছেন। জঞ্জাল অপসারণ নিয়ে তাঁর বক্তব্য, ‘‘পুর দফতর ডাম্পিং গ্রাউন্ড তৈরির জন্য দু’টি জায়গা ঠিক করেছিল। এলাকার মানুষের চাপে তা বাতিল হয়।’’ তাঁর দাবি, সাময়িক ভাবে শহরের বিভিন্ন জায়গায় জঞ্জাল রাখা হলেও নির্দিষ্ট সময় অন্তর তা সরিয়ে ফেলা হচ্ছে।  স্বপনবাবু জানান, তাঁদের তোলা সমস্যাগুলির বিহিত না হলে আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর তাঁরা জেলাশাসকের কাছে নালিশ করবেন।