প্রায় দেড় মাস আগে জেলাতেই আসছিলেন তাঁরা। গন্তব্য ছিল সিউড়ি বিদ্যাসাগর কলেজ। কিন্তু পথে ঘটে যায় দুর্ঘটনা। প্রাণ হারান দলের প্রধান গায়ক কালিকাপ্রসাদ ভট্টাচার্য। বাংলা লোকগানের দল ‘দোহার’ সেই দুর্ঘটনার পরে প্রথম জেলায় এল রবিবার।

কালিকাপ্রসাদকে স্মরণ করে রবিবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল রামপুরহাটের সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী ‘স্বয়ম’। রামপুরহাট মহকুমা ক্রীড়া সংস্থার স্টেডিয়ামে খোলা আকাশের নীচে অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানের শুরুতেই চোখ রাঙিয়েছিল আকাশ। অনেকেই আশঙ্কা করেছিলেন, কালবৈশাখী বুঝি ভেস্তে দেয় সব আয়োজন! কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা হয়নি। দেরি করে শুরু হলেও গভীর রাত পর্যন্ত অনুষ্ঠান চলে। ‘দোহার’-এর সঙ্গে অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন টেলিভিশনের রিয়্যালিটি শো খ্যাত ঋষি, তীর্থ, স্মিতারা। ওই রিয়্যালিটির শো-র সঙ্গে যুক্ত ছিলেন কালিকাপ্রসাদ।

এর আগেও দু’বার রামপুরহাটে অনুষ্ঠান করেছে ‘দোহার’। কিন্তু কালিকাপ্রসাদকে ছাড়া এই প্রথম। ‘দোহার’-এর পক্ষ থেকে রাজীব দাস জানান, ১৭ বছর ধরে তাঁরা লোকগান পরিবেশন করে আসছেন। কালিকাপ্রসাদের দেখানো পথে সেই গানকেই আরও ছড়িয়ে দিতে চান। তিনি বলেন, ‘‘কালিকাদার স্মৃতির চেয়েও তার আদর্শই আমরা বেশি করে আঁকড়ে রাখতে চাই।’’ আসর বন্দনা গানের মাধ্যমে শুরু হয় অনুষ্ঠান। শেষ হয় সবাই মিলে বাঙলাদেশে সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত ‘ভুবন মাঝি’ ছবিতে কালিকাপ্রসাদের সুর দেওয়া ‘আমি তোমারই নাম গাই’ গেয়ে।

আয়োজক গোষ্ঠী ‘স্বয়ম’-এর পক্ষ থেকে কৌশিক আইচ জানান, অনুষ্ঠানে দর্শকদের মতামত জানানোরও ব্যবস্থা ছিল।

রক্তকরবী নাটক: শান্তিনিকেতনের গৌরপ্রাঙ্গণে হল ‘রক্তকরবী’। নতুন আঙ্গিকে নাটকটির উপস্থাপন করলেন পরিচালক গৌতম হালদার। ওই নাটকে ‘নন্দিনী’ ভূমিকায় ছিলেন সন্দর্ভ নাট্যগোষ্ঠীর অভিনেত্রী চৈতি ঘোষাল। অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক পাঠভবনের শিক্ষক কিশোর ভট্টাচার্য জানান, ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য স্বপন দত্তের সহযোগিতায় সমগ্র অনুষ্ঠানটি হয়েছে।