• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নেতার আগাম জামিন খারিজ

kolkata high court

Advertisement

বীরভূমের বিজেপি নেতা নিমাই দাসের আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করে দিল কলকাতা হাইকোর্ট। তাঁর বাড়ি থেকে গাঁজা উদ্ধারের অভিযোগে মাদক আইনে মামলা দায়ের হয়। শুক্রবার সেই মামলার শুনানিতে বিচারপতি জয়মাল্য বাগচী ও বিচারপতি শুভ্রা ঘোষের ডিভিশন বেঞ্চ ওই নেতার আগাম জামিন খারিজ করে দেয়। সরকারি কৌঁসুলি সঞ্জয় বর্ধন জানান, ২২ অক্টোবর রাত সওয়া ১০টা নাগাদ ইলামবাজার টোল গেটে একটি গাড়ি থামিয়ে তল্লাশির সময় ৪১ কিলোগ্রাম গাঁজা-সহ চার জনকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃতদের মধ্যে ওই গাড়ির চালকও ছিলেন। তাঁদের জেরা করার সময় গোপাল শেখ নামে অন্য এক ধৃত পুলিশকে জানান, নিমাই দাসের বাড়িতেও বেশ কয়েক কেজি গাঁজা মজুত রয়েছে। সেই সূত্র ধরে তদন্তকারীরা নিমাইয়ের কসবা বাঁধ নবগ্রামের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে ১১ কিলোগ্রাম গাঁজা উদ্ধার করেন বলে দাবি। তখনই তাঁর বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দায়ের হয়।

মামলার শুনানিতে নিমাইয়ের আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য জানান, পুলিশ যখন বাড়িতে তল্লাশি করে, সেই সময় তাঁর মক্কেল সেখানে ছিলেন না। তাই তাঁর কাছ থেকে গাঁজা উদ্ধার হয়েছে তা বলা যায় না। সরকারি কৌঁসুলি জানান, অভিযুক্ত তল্লাশির সময় বাড়িতে না থাকলেও, গাঁজা যে মিলেছে তার প্রমাণ রয়েছে। তা ছাড়া মামলার অন্যতম অভিযুক্ত গোপালের বয়ানের ভিত্তিতেও নিমাইয়ের বাড়িতে তল্লাশি চালানো হয়। জেলা বিজেপির সভাপতি শ্যামপদ মণ্ডল অবশ্য বলছেন, ‘‘তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি করার জন্যই রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে নিমাইবাবুর বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দিয়েছে পুলিশ।’’ তৃণমূলের জেলা সহ সভাপতি অভিজিৎ সিংহ বলছেন, ‘‘আদালতে বিচারাধীন মামলা নিয়ে মন্তব্য না করাই ভাল।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন