প্রস্তাবিত কয়লাখনি এলাকার মানুষের অধিকার ও মর্যাদার দাবিতে আয়োজন করা হল গণ কনভেনশনের। বুধবার মহম্মদবাজারের ভাঁড়কাটা পঞ্চায়েতের কাপাসডাঙা প্রাথমিক স্কুল মাঠে সিআইটিইউ, সারা ভারত কৃষকসভা, সারা ভারত খেতমজুর ইউনিয়ন, পশ্চিমবঙ্গ আদিবাসী অধিকার মঞ্চ, সারা ভারত গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতি ও বীরভূম জেলা কমিটির পক্ষ থেকে তার আয়োজন করা হয়।

মূলত ডেউচা-পাঁচামি প্রস্তাবিত কয়লাখনি প্রকল্প নিয়ে কথা হয়। উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন বিধায়ক গৌরাঙ্গ চট্টোপাধ্যায়, সারা ভারত কৃষকসভার সম্পাদক অরূপ বাগ, সারা ভারত খেতমজুর ইউনিয়নের সম্পাদক জুরান বাগদি, পশ্চিমবঙ্গ আদিবাসী অধিকার মঞ্চের সম্পাদক বিশ্বনাথ কিস্কু, সিআইটিইউ সম্পাদক দীপঙ্কর চক্রবর্তী, সারা ভারত গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতির কবিতা রায়।

গৌরাঙ্গবাবুর বক্তব্য, এলাকায় কয়লা উত্তোলন ‘কোল ইন্ডিয়া’র মাধ্যমেই করতে হবে। তবেই এই এলাকার মানুষ পুনর্বাসন, ক্ষতিপূরণ বা জমির পরিবর্তে চাকরি পেতে পারেন। কোনও বেসরকারি সংস্থাকে কয়লা উত্তোলনের দায়িত্ব দেওয়া হলে সে সব সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হতে হবে এলাকাবাসীকে। তাঁর মন্তব্য, ‘‘এলাকার মানুষের অধিকার ও মর্যাদা দিয়েই শিল্প গড়ে তুলতে হবে।’’ তিনি দাবি করেন, এলাকার মানুষ নিজেদের জমি, বাড়ি ফিরে পেতে চান। সে জন্য তাঁরা কয়লা খনি তৈরির বিরুদ্ধে লড়াই করছেন। তাঁরাও এলাকাবাসীর পাশে থেকে লড়াই করতে প্রস্তুত।