• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রক্তের খোঁজও মিলবে অ্যাপে

Inauguration
নতুন: অ্যাপের উদ্বোধন করছেন ডিএফও ভাস্কর জেভি। পাশে পুলিশ সুপার কোটেশ্বর রাও এবং জেলাশাসক উমাশঙ্কর এস। নিজস্ব চিত্র

আত্মীয়ের অস্ত্রোপচারের জন্য অবিলম্বে দু’ইউনিট রক্ত জোগাড় করে রাখতে বলেছেন চিকিৎসক। ব্লাড ব্যাঙ্কে গিয়ে শুনলেন, রক্তের সঙ্কট। রক্ত নিতে হলে দাতা নিয়ে আসতে হবে। এই পরিস্থিতিতে কী করবেন বুঝতে না পেরে অনেকেই দালালদের খপ্পরে পড়েন। মোটা টাকা দিয়ে ডোনার ভাড়া করা, বা অন্য কোথাও গিয়ে চড়া দাম দিয়ে রক্ত কেনা ছাড়া অন্য কোনও উপায় মাথাতেও আসে না। এমন সঙ্কটে ত্রাতা হতে অ্যাপ নিয়ে এল বাঁকুড়া জেলা প্রশাসন।

বাঁকুড়ার জেলাশাসক উমাশঙ্কর এস-এর উদ্যোগে চালু হয়েছে ‘বাঁকুড়া রক্তবন্ধু’ নামে ওই অ্যাপটি। সোমবার জেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে একটি অনুষ্ঠানে অ্যাপের উদ্বোধন হয়েছে। উপস্থিত ছিলেন জেলাশাসক, বাঁকুড়ার পুলিশ সুপার কোটেশ্বর রাও, ডিএফও (উত্তর) ভাস্কর জেভি, বাঁকুড়া মেডিক্যালের ভারপ্রাপ্ত সুপার গৌতম নারায়ণ সরকার প্রমুখ।

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, অ্যান্ড্রয়েড ফোনে প্লে স্টোর থেকে ‘বাঁকুড়া রক্তবন্ধু’ নামে অ্যাপটি ডাউনলোড করা যাবে। নয়তো ইন্টারনেটে bankuraraktabandhu.in —এই ঠিকানায় গেলেও হবে। ওয়েবসাইট বা অ্যাপে রক্ত চেয়ে আবেদন করা যেতে পারে। সেখানেই আবার মিলবে রক্তদাতাদের নাম ও নম্বর। জেলাশাসক বলেন, “আমরা চাই রক্তদাতা ও গ্রাহকের মধ্যে সরাসরি সম্পর্ক গড়ে উঠুক। তা হলে অনেকটাই সমস্যা মিটবে। সেই লক্ষ্যে এই অ্যাপ বানানো হয়েছে।”

বছর খানেক আগেই বাসের ছাদ থেকে পড়ে গিয়ে পা ভেঙেছিল বিষ্ণুপুরের মাধবগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা প্রবীর রজকের। প্রবীরবাবুর ছেলে রাজু রজক বলেন, “বাবাকে বাঁকুড়া মেডিক্যালে ভর্তি করে রক্তের জন্য হন্যে হয়ে ঘুরছিলাম। ব্লাড ব্যাঙ্কে রক্ত ছিল না। দালালরা আমাকে ছেঁকে ধরেছিল চড়া দামে বাইরে থেকে রক্ত কেনার জন্য। খুব খারাপ অভিজ্ঞতা হয়েছিল। প্রশাসনের এই উদ্যোগে হয়তো এ বার ছবিটা বদলাবে।”   

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন