• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সেন্সরের কোপে ‘লিপস্টিক আন্ডার মাই বুরখা’

Lipstick under my burkha
‘লিপস্টিক আন্ডার মাই বুরখা’-র একটি দৃশ্য।

ফের সেন্সর বোর্ডের চোখ রাঙানি। এ বার টার্গেটে ‘লিপস্টিক আন্ডার মাই বুরখা’। টুইট করে এ খবর জানিয়েছেন অভিনেতা তথা পরিচালক ফারহান আখতার।

কিন্তু কেন সেন্সর বোর্ড আটকে দিল ছবিটি? ফারহানের যুক্তি, ‘‘ছবির গল্প মহিলা কেন্দ্রিক। কিছু যৌন দৃশ্য রয়েছে, অডিও পর্ন রয়েছে, সমাজের একটি নির্দিষ্ট অংশের প্রতি সেনসিটিভি টাচ রয়েছে। সে কারণেই হয়তো আপত্তি তুলেছে সেন্সর বোর্ড।’’

আরও পড়ুন, কর্ণ কি আদৌ বন্ধু ছিলেন? এত দিনে মুখ খুললেন কাজল

এ ছবির পরিচালক অলঙ্কৃতা শ্রীবাস্তবের কথায়, ‘‘আমি হেরে যাব না। সেন্সর বোর্ডের আপত্তির পর তো আরও বেশি করে মনে হচ্ছে ভারতীয় দর্শকদের অবশ্যই ছবিটা দেখা উচিত। আমি তো বলব ছবি মুক্তিতে বাধা দিয়ে নারীর অধিকারে বাধা দিয়েছে সেন্সর কর্তারা। আমি এর শেষ দেখে ছাড়ব।’’

অনুরাগ কাশ্যপের ‘উড়তা পঞ্জাব’ বিতর্কের পর থেকেই সমালোচিত হয়েছেন সেন্সর বোর্ডের প্রধান পহেলাজ নিহালনি। তাঁর এই সিদ্ধান্ত নিয়েও আলোচনা শুরু হয়েছে বলি মহলে। পরিচালক প্রকাশ ঝা বলেছেন, ‘‘সিনেমা একটা চ্যালেঞ্জের মতো। আমাদের দেশে অবশ্যই যে কোনও কিছু প্রকাশের স্বাধীনতা থাকা উচিত। আমি মনে করি দর্শকদের ছবিটি দেখতে পাওয়াটা তাঁদের অধিকারের মধ্যেই পরে।’’

ছবির একটি দৃশ্যে কঙ্কনা।

গত অক্টোবরে ইউটিউবে মুক্তি পায় ‘লিপস্টিক আন্ডার মাই বুরখা’র ট্রেলার। আর তার পরই ভাইরাল হয়ে ওঠে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এমনই এক বিষয় ফুটে উঠেছে এই ছবির ট্রেলারে যা এদেশে ট্যাবু।  নারীর স্বাধীনতা আর তাঁদের জীবনের একের পর এক প্রশ্ন চিহ্ন নিয়ে গড়ে উঠেছে চিত্রনাট্য। ট্রেলারে একটা ইঙ্গিত স্পষ্ট, যে পর্দা আমাদের সমাজের নারীদের লুকিয়ে রাখতে চায় আর তার থেকেও বেশি লুকিয়ে রাখতে চায় তাঁদের অন্তরের ইচ্ছা গুলোকে। বিভিন্ন বয়সের চার জন মহিলা। কলেজ পড়ুয়া, বিউটিশিয়ান, হাউসওয়াইফ আর একজন ৫৫ বছর বয়সী বিধবা। এঁদের চরিত্রে অভিনয় করেছেন প্লাবিতা বোড়ঠাকুর, অহনা কুমড়া, কঙ্কনা সেনশর্মা এবং রত্না পাঠক শাহ। সুশান্ত সিংহ, ভিক্রান্ত মাসে, শশাঙ্ক অরোরা যোগ্য সঙ্গত করেছেন।

আরও পড়ুন, এই ছোট্ট মেয়েটি এখন নায়িকা! কে ইনি?

ট্রেলার শুরু হচ্ছে সেই সময়ের কথা দিয়ে যে সময় একটি মেয়ে মহিলা হয়ে উঠতে চায়। মাঝ বয়সে স্বামীর মৃত্যুর পর আরেক বার প্রেম করবার অনুমতি সমাজ তাঁকে দেয়নি। কিন্তু তাঁর মন তাঁকে সে অনুমতি দিয়েছে। আর সেই অতৃপ্ত হৃদয়ে বোরখার ভিতর দিয়ে সে বারবার দেখে ‘লিপিস্টিকওয়ালি ড্রিম’। হাঁটু বয়সী বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে নিজেকে ভাসিয়ে দেয় সুইমিং পুলে। শেষে ঘরের পুরুষকে প্রশ্ন করে ‘জীবনে শুধু বাচ্চা পয়দা করা ছাড়াও কি অন্য কোনও প্ল্যান আছে তোমার?’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন