• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ছবিতে কি দাউদের টাকা, শুরু তদন্ত

Hasina Parkar

Advertisement

মুক্তির আগেই বিপাকে ‘হাসিনা পার্কার’!

দিন দুয়েক আগেই তোলাবাজির মামলায় মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহিমের ভাই ইকবাল কাসকরকে পাকড়াও করেছে ঠাণে পুলিশ। তার পরেই তাদের বোন হাসিনা পার্কারকে নিয়ে বানানো ওই ছবিটিতে দাউদের সংস্থা আদৌ টাকা ঢেলেছে কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

সেই ঘটনার তদন্তে নেমে ঠাণে পুলিশের আবার দাবি, ‘হাসিনা পার্কার’ ছবিতে অপরাধ জগৎই বিনিয়োগ করেছে। গত কালই এর তদন্ত চেয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে চিঠি দিয়েছিল হিন্দু সেনা। তাদের অভিযোগ ছিল, ‘হাসিনা পার্কার’ ছবিতে পুলিশের ভাবমূর্তি নষ্ট করা হয়েছে।

তার পরেই আজ এক সাংবাদিক বৈঠকে ঠাণে পুলিশ কমিশনার পরমবীর সিংহের দাবি, এ ধরনের অপরাধের পক্ষে যুক্তি দিতেই ওই ছবির পিছনে টাকা ঢেলেছে অপরাধীরা। তিনি আরও জানান যে, এর আগেও একাধিক বার তোলাবাজি থেকে পাওয়া টাকা বলিউডি ছবির পিছনে ঢেলেছে দাউদ ও সহযোগীরা। ফলে এ বারেও দাউদ-যোগের সম্ভাবনাটা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

ইকবালের গ্রেফতারি প্রসঙ্গে পুলিশের আর এক অফিসার জানান, হাসিনার মৃত্যুর পরে তার নাগপাড়ার বাড়ি থেকেই মুম্বই ও ঠাণের ব্যবসা সামলাতো ইকবাল। এমনকী, হাসিনার আমলে তার বাড়িতে প্রতিদিন ‘দরবার’ বসতো। তার মৃত্যুর পরে তা বন্ধ হয়নি। সেই প্রথা চালু রেখেছিল ইকবালই।

সূত্রের খবর, শ্রদ্ধা কপূর অভিনীত ওই ছবিটি দাউদের বোন হাসিনা পার্কারকে নিয়ে তৈরি হয়েছে। আগামী ২২ সেপ্টেম্বর তা মুক্তি পাওয়ার কথা। ১৯৯১ সালে তার স্বামী খুন হয়ে যাওয়ার পরেই অন্ধকার জগতে পা রাখে হাসিনা। ধীরে ধীরে মুম্বইয়ের ত্রাস ‘আপা’ হয়ে ওঠে সে। মূলত মুম্বইয়ে দাউদের ব্যবসা সামলাতো হাসিনা। তার বিরুদ্ধে ছিল বহু মামলা। ২০১৪ সালে মারা গিয়েছে সে। হাসিনাকে নিয়ে তৈরি ওই ছবিটিতে দেখানো হয়েছে ১৯৯৩ সালের মুম্বই বিস্ফোরণের ঘটনা।

সেই সূত্র ধরেই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে পাঠানো ওই চিঠিতে হিন্দু সেনা দাবি করেছিল, ছবিতে মুম্বই বিস্ফোরণে পুলিশের ভূমিকাকে অত্যন্ত খাটো করে দেখানো হয়েছে। এমনকী ওই ছবিতে বিস্ফোরণের সমর্থনে যথেষ্ট যুক্তিও আছে। সব মিলিয়ে, ‘হাসিনা পার্কার’ ছবিটি যেন দাউদের পরিবারের প্রতি সহানুভূতি জানাতেই তৈরি।

‘হাসিনা পার্কার’ ছবিতে অপরাধ জগৎ টাকা ঢেলেছে কি না, তার তদন্ত চেয়ে হিন্দু সেনা চিঠি দিতেই ঠাণে পুলিশ তার দ্রুত তদন্তে নামায়ও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। অনেকের প্রশ্ন, চাপে পড়েই কি তড়িঘড়ি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে বিজেপি সরকার।                                  

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন