×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

বিনোদন

অল্প সময়েই ১০০ কোটির মালিক, নেই বলিউডের কোনও ছবিতে, তবু ‘ন্যাশনাল ক্রাশ’ এই অভিনেত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদন
২২ নভেম্বর ২০২০ ২১:৪৪
রশ্মিকা মন্দনা। গ্ল্যামার দুনিয়ার খবর যাঁরা রাখেন বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মের কাছে খুবই পরিচিত নাম এটা। কারণ রশ্মিকাই এখন ‘ন্যাশনাল ক্রাশ’।

দীপিকা, ক্যাটরিনা, দিশা পাটনির মতো বলিউডের তাবড় তাবড় নায়িকাকে পিছনে ফেলে দিয়েছেন এই রশ্মিকা। সার্চ ইঞ্জিন গুগলে ‘ন্যাশনাল ক্রাশ অব ইন্ডিয়া’ লিখে সার্চ করলে রশ্মিকার ছবিই দেখতে পাবেন।
Advertisement
তবে গ্ল্যামার দুনিয়া মানেই বলিউড নয়, আর বলিউডে তন্ন তন্ন করে খুঁজলেও রশ্মিকাকে খুঁজে পাবেন না। কারণ এখনও বলিউডে তিনি পা রাখেননি। তিনি মূলত কন্নড় ফিল্মের নায়িকা।

২০১৬ সালে কন্নড় ফিল্ম ‘কিরিক পার্টি’তে তিনি ডেবিউ করেন। কন্নড় ছাড়া তেলুগু ফিল্মেও চুটিয়ে কাজ করছেন রশ্মিকা।
Advertisement
তাঁকে দর্শকেরা এতটাই পছন্দ করেছেন যে এই অল্প সময়ের মধ্যেই তিনি ১০০ কোটি টাকার মালিক হয়ে গিয়েছেন। সারা ভারত খুঁজলেও এমন কোনও অভিনেত্রী পাওয়া যাবে না যিনি এই অল্প সময়ে এত টাকা উপার্জন করে ফেলেছেন।

রশ্মিকার জন্ম কর্নাটকের বিরাজপেটে। কলেজে পড়ার সময় থেকেই পড়াশোনার পাশাপাশি তিনি মডেলিং করতেন। প্রচুর বিজ্ঞাপনেও দেখা গিয়েছে তাঁকে।

বিজ্ঞাপনের শ্যুটিংয়ের সময় তাঁর একটা ছবি দেখেই কন্নড় ফিল্ম ‘কিরিক পার্টি’র পরিচালকের পছন্দ হয়ে গিয়েছিল তাঁকে। পরিচালক নিজেই তাঁকে ফিল্মের প্রস্তাব দেন।

২০১৭ সালে দক্ষিণী নায়ক রক্ষিত শেট্টিকে বিয়ে করেন তিনি। কিন্তু বছর ঘুরতে না ঘুরতেই তাঁদের বিচ্ছেদও হয়ে যায়।

ফিল্ম ‘কিরিক পার্টি’ থেকেই তাঁদের পরিচয়। এই ফিল্মে রক্ষিত তাঁর বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন।

গ্ল্যামার দুনিয়ায় আসার পর থেকে এখনও পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি রশ্মিকাকে। এখনও পর্যন্ত তাঁর প্রতিটা ফিল্মই বাণিজ্যিক ভাবে দারুণ সফল।

খুব দ্রুত কেরিয়ারে উত্থান ঘটা রশ্মিকা এতদিন কর্নাটকের ক্রাশ হিসাবেই পরিচিত ছিলেন। এ বার কর্নাটকের পাশাপাশি ন্যাশনাল ক্রাশও হয়ে উঠলেন।

কেন রশ্মিকাকে নিয়ে এত কাটাছেঁড়া? এর পিছনে অবশ্যই রয়েছে তাঁর দুর্দান্ত অন স্ত্রিন পারফরম্যান্স। তা ছাড়াও আরও একটি কারণ তাঁকে ন্যাশনাল ক্রাশ করে তুলেছে।

তাঁর অসম্ভব মিষ্টি হাসি। রশ্মিকার হাসিতে নাকি জাদু রয়েছে। আর ভুবন ভোলানো সেই হাসিতেই মজেছে তরুণ প্রজন্ম।

তাঁর নাম দিয়ে এত পরিমাণ সার্চ হয়েছে গুগলে যে তিনিই এখন ন্যাশনাল ক্রাশ।

এর আগে বলি অভিনত্রী দিশা পাটানি হয়েছিলেন ন্যাশনাল ক্রাশ। সেই দৌড়ে দিশাকেও পিছনে ফেলে এগিয়ে এলেন রশ্মিকা।

দেশের তরুণ প্রজন্ম যাঁর ভক্ত তিনি আবার হৃতিক রোশনের খুব বড় ভক্ত। সম্প্রতি হৃতিকের ‘ওয়ার’ ছবির গান ‘ঘুঙরু’তে নেচে ভিডিয়ো পোস্ট করেছিলেন তিনি। সেটা ভাইরালও হয়ে যায়।

সম্প্রতি ভেঙ্কি কুদুমালার পরিচালনায় তেলুগু ছবি ‘ভীষ্ম’ মুক্তি পেয়েছে। সেই ছবিতে মুখ্যভূমিকায় অভিনয় করেছেন রশ্মিকা। ছবির শ্যুটিংয়ে ইটালি গিয়েছিলেন তিনি। সেখানেই পছন্দের অভিনেতার নাচের ঢঙে ‘ঘুঙরু’ গানে নেচেছেন।

এছাড়া আগামী বছরে কন্নড়, তামিল এবং তেলুগু মিলিয়ে আরও ৪টি নতুন ফিল্ম মুক্তি পেতে চলেছে তাঁর।

যে ভাবে রশ্মিকা এগোচ্ছেন তাতে খুব তাড়াতাড়িই বলিউডে তিনি সুযোগ পেয়ে যাবেন. তাঁর বলি ডেবিউয়ের জন্য দেশ জুড়ে অপেক্ষায় রয়েছেন তাঁর লক্ষ লক্ষ ভক্ত।