Advertisement
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
water

Weight Loss: ব্যস্ততার জেরে শরীরচর্চার সময় পাচ্ছেন না? রোগা থাকতে জল খান নিয়ম মেনে

ওজন কমানোর দীর্ঘ প্রস্তুতিতে ধৈর্য হারিয়ে ফেলেন অনেকেই। চটজলদি মেদ ঝরাতে ভরসা রাখতে পারেন জলের উপর।

জাপানে এই জল খেয়ে রোগা হওয়া বেশ প্রচলিত একটি পদ্ধতি।

জাপানে এই জল খেয়ে রোগা হওয়া বেশ প্রচলিত একটি পদ্ধতি। ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ২০:০৯
Share: Save:

নিয়মিত শরীরচর্চা করা, মেপে খাওয়াদাওয়া করা ওজন কমানোর ঝক্কি অনেক। এ দিকে, ওজন কমানোর এই দীর্ঘ প্রস্তুতিতে ধৈর্য হারিয়ে ফেলেন অনেকেই। তা হলে ওজন কমানোর উপায় কী? জল। শুনে অবাক লাগছে? কিন্তু জল খেয়েই ঝরিয়ে ফেলতে পারেন শরীরের জমে থাকা মেদ। বিশেষ করে জাপানে এই জল খেয়ে রোগা হওয়া বেশ প্রচলিত একটি পদ্ধতি। এর পোশাকি নাম ‘ওয়াটার থেরাপি’। শুধু ওজন নয়, এই পদ্ধতিতে পাকস্থলী সুস্থ থাকবে। হজমের সমস্যাও দূর হবে।

জল খেয়ে রোগা থাকার পদ্ধতি কেমন?

১) সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে ৪-৫ গ্লাস জল খেয়ে নিন।

২) দাঁত মাজার কিছু ক্ষণ পর আরও কিছুটা জল খেয়ে প্রায় ৪০ মিনিট খালি পেটে থাকুন। তার পর সকালের খাবার খান।

৩) রোজ একটি নির্দিষ্ট সময়ে খাবার খাওয়ার অভ্যাস করুন। খাবার খাওয়ার সময়ে জল একে বারেই খাবেন না। পারলে খাওয়ার আগে জল খেয়ে নিতে পারেন। খাবার খাওয়ার প্রায় ঘণ্টা খানেক পর জল খান।

৪) দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে জল না খেয়ে এক জায়গায় সুস্থ ভাবে বসে তার পর জল খান। তবে একসঙ্গে ঢকঢক করে জল না খেয়ে, অল্প অল্প পরিমাণ জল বার বার খান।

৫) রোগা হওয়ার চেষ্টা করছেন মানে খাবারের পরিমাণ কমিয়ে দেওয়ার চেয়েও জল খাওয়ার পরিমাণ বাড়িয়ে দিন।

জাপানে এই জল খেয়ে রোগা হওয়া বেশ প্রচলিত একটি পদ্ধতি।

জাপানে এই জল খেয়ে রোগা হওয়া বেশ প্রচলিত একটি পদ্ধতি। ছবি: সংগৃহীত

ওজন কমাতে কেন কার্যকর এই ‘ওয়াটার থেরাপি’?

এই পদ্ধতিতে যেহেতু প্রচুর পরিমাণে জল পান খেতে হয়, ফলে শরীরের বিপাকের হার বেড়ে যায়। বাড়তি মেদ অতি সহজেই ঝরে যেতে পারে। এ ছাড়াও জল খেলে শরীর থেকে সব বর্জ্য বেরিয়ে যায়। এতে শরীর ঝরঝরে হয়ে যায়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE