Advertisement
০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Coronavirus

এক লাফে ৬০১ বেড়ে দেশে করোনা আক্রান্ত ২৯০২, মৃত্যু বেড়ে ৬৮

আক্রান্তের সংখ্যায় এখনও পর্যন্ত শীর্ষস্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্র। (গ্রাফিক আপডেট হচ্ছে)

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ। (গ্রাফিক আপডেট হচ্ছে)

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ। (গ্রাফিক আপডেট হচ্ছে)

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০৩ এপ্রিল ২০২০ ১১:৩২
Share: Save:

এক দিনে রেকর্ড সংখ্যক করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ল দেশে। শুক্রবার সকাল থেকে শনিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে কোভিড-১৯ পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে ৬০১ জনের। এক দিনে এটাই সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যা। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫৫ জন। এই নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ২৯০২। যে ভাবে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে আবার তাতে উদ্বেগ বেড়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের। শুক্রবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের দেওয়া হিসেবে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ২৩০১। সেখান থেকে ১২ ঘণ্টায় এক লাফে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ২৪৬।

Advertisement

মৃত্যুর হারেও চিন্তার ভাঁজ চওড়া হয়েছে কেন্দ্র তথা রাজ্য সরকারগুলির। ২৪ ঘণ্টায় মৃত বেড়েছে ৯ জন। গতকালের ৫৩ জন থেকে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬২। আর এ দিন সকালে মৃতের সংখ্যা ছিল ৫৬। ১২ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের। তবে আশার কথা আক্রান্তের সংখ্যার সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যাও বাড়ছে দেশে। বর্তমানে সেই সংখ্যা ১৬২, সকালে ছিল ১৫৬।

আক্রান্তের সংখ্যায় এখনও পর্যন্ত শীর্ষস্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্র। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৩৫ জন। মহারাষ্ট্রের পরই ছিল কেরল। তার পরে ছিল তামিলনাড়ু। কিন্তু গত দু’দিনের মধ্যে প্রায় পাঁচ গুণ সংক্রমণ বেড়েছে তামিলনাড়ুতে। ৩১ মার্চ ওই রাজ্যে সংক্রমণের যে সংখ্যাটা ছিল মাত্র ৭৪। সেটাই ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩০৯। এই অল্প সময়ে সংক্রমণের একটা বিশাল লাফ এক ধাক্কায় দেশের মোট সংক্রমণের সংখ্যাও বাড়িয়ে দিয়েছে। সংক্রমণের সংখ্যার নিরিখে তৃতীয় স্থানে চলে এসেছে কেরল। সেখানে ২৮৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু এবং কেরলের পর রয়েছে দিল্লি(২৯১), তার পর রাজস্থান(১৩৩), উত্তরপ্রদেশ(১১৩), অন্ধ্রপ্রদেশ(১৩২) এবং তেলঙ্গানা(১০৭)। করোনায় মৃত্যুর নিরিখে প্রথম স্থানেও মহারাষ্ট্র। সেখানে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর পরে রয়েছে গুজরাত। সেখানে মৃত্যু হয়েছে ৭ জনের। মধ্যপ্রদেশে মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের। দিল্লি ও পঞ্জাবে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

Advertisement

আরও পড়ুন: ৫ এপ্রিল ৯ মিনিটের সময় চাইছি, দেশবাসীর উদ্দেশে আহ্বান মোদীর

আরও পড়ুন: লকডাউন না-মানলে কারাবাস, জরিমানা

করোনার এই সঙ্কটের মধ্যে নিজামউদ্দিনের জমায়েত আরও আশঙ্কা বাড়িয়েছে সরকারের। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, নিজামুদ্দিনের জমায়েতে উপস্থিত এবং তাঁদের সংস্পর্শে আসা প্রায় ন’হাজার জনকে চিহ্নিত করে কোয়রান্টিনে পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে ১৩০৬ জন বিদেশি। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের যুগ্ম সচিব লব আগরওয়াল জানিয়েছেন, তল্লাশি চালিয়ে অন্তত ৪০০ জন সংক্রমিতের খোঁজ মিলেছে, যাঁরা তবলিগি জামাতের সদস্য। এই সংখ্যা আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা আগরওয়ালের।

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.