Advertisement
১৪ এপ্রিল ২০২৪
Electoral Bonds

সুপ্রিম কোর্টের রায়ের আগেই ছাপা হয় ১ কোটির নির্বাচনী বন্ড! ‘ধাক্কা’র জন্য তৈরি ছিল না ‘আত্মবিশ্বাসী’ কেন্দ্র?

২০১৮ সালে নির্বাচনী বন্ড চালু হওয়ার পর থেকে মোট ৬.৮২ লক্ষ নির্বাচনী বন্ড ছাপানো হয়। তার মধ্যে ১ কোটি টাকার বন্ডের মোট সংখ্যা ৩৩ হাজার।

Electoral Bonds

—প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ০৭:৪৮
Share: Save:

নির্বাচনী বন্ড অসাংবিধানিক বলে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি রায় দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। কিন্তু গত ২৭ ডিসেম্বরের পর থেকে সুপ্রিম কোর্টের এই রায় বেরোনোর আগে পর্যন্ত নরেন্দ্র মোদী সরকার ১ কোটি টাকা মূল্যের ৮৩৫০টি নির্বাচনী বন্ড ছাপিয়ে ফেলেছিল বলে তথ্যের অধিকার আইনে করা এক আবেদনে জানা গিয়েছে।

নিজেকে ‘স্বচ্ছতা-কর্মী’ বলে পরিচয় দেওয়া লোকেশ বাত্রার করা আবেদনে এই তথ্য জানা গিয়েছে। সর্বোচ্চ আদালতে মামলা হওয়া সত্ত্বেও সরকারের এত বেশি ১ কোটির নির্বাচনী বন্ড ছাপানো প্রসঙ্গে লোকেশ বলেন, ‘‘মনে হচ্ছে, সরকার আত্মবিশ্বাসী ছিল যে, সুপ্রিম কোর্ট স্থিতাবস্থা বজায় রাখবে। তাই তারা ১ কোটির বন্ড ছাপানো বন্ধ করেনি।’’

২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের সমস্ত খবর জানতে চোখ রাখুন আমাদের 'দিল্লিবাড়ির লড়াই' -এর পাতায়।

চোখ রাখুন

জানা গিয়েছে, ২০১৮ সালে নির্বাচনী বন্ড চালু হওয়ার পর থেকে মোট ৬.৮২ লক্ষ নির্বাচনী বন্ড ছাপানো হয়। তার মধ্যে ১ কোটি টাকার বন্ডের মোট সংখ্যা ৩৩ হাজার। গত বছরের ২৭ ডিসেম্বর পাওয়া তথ্যে এই সংখ্যাটা ২৪,৬৫০ বলে জানা যায়। অর্থাৎ তার পরে আরও ৮৩৫০টি বন্ড ছাপানো হয়েছে, যেগুলির মূল্য ১ কোটি টাকা। হিসাবে আরও জানা যাচ্ছে, ১ কোটির বন্ড বিক্রি হয়েছে মোট ১৫,৬৩১টি। অন্য দিকে, দশ লক্ষের ২৬,৬০০টি বন্ড ছাপানো হলেও বিক্রি হয়েছে মাত্র ৮৫২৩টি। জানুয়ারি পর্যন্ত বিক্রি হওয়া যাবতীয় নির্বাচনী বন্ডের মোট মূল্য ১৬,৫১৮.১০ কোটি টাকা। সেই টাকার ৯৪.৬৫ শতাংশ এসেছে শুধু ১ কোটির বন্ড বিক্রি করে। সাম্প্রতিক আরটিআই আবেদন থেকে দেখা যাচ্ছে, নির্বাচনী বন্ড ছাপতে সরকারের খরচ ১.৯০ কোটি টাকা পেরিয়ে গিয়েছে। সর্বশেষ ৮৩৫০টি বন্ড ছাপাতে কত খরচ হয়েছিল, তা এখনও জানা যায়নি।

২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের সমস্ত খবর জানতে চোখ রাখুন আমাদের 'দিল্লিবাড়ির লড়াই' -এর পাতায়।

চোখ রাখুন
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE