Advertisement
১৯ জুন ২০২৪
India-China

প্যাংগংয়ের পাড়ে পরিস্থিতি উদ্বেগজনক, বলছে উপগ্রহ ছবি

চিনের তরফে ভারতীয় সেনার বিরুদ্ধে এলএসি লঙ্ঘনের যে অভিযোগ তোলা হচ্ছে, উপগ্রহ চিত্রে তারও প্রমাণ মেলেনি।

প্যাংগং হ্রদের উত্তরে ফিঙ্গার-৪ এলাকায় চিনা ফৌজের উপস্থিতি। ৭ সেপ্টেম্বর ‘ম্যাক্সার’-এর উপগ্রহ চিত্র। গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

প্যাংগং হ্রদের উত্তরে ফিঙ্গার-৪ এলাকায় চিনা ফৌজের উপস্থিতি। ৭ সেপ্টেম্বর ‘ম্যাক্সার’-এর উপগ্রহ চিত্র। গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৮:০৪
Share: Save:

ফের ‘ড্রাগনের নিঃশ্বাস’ প্যাংগং হ্রদের উত্তরে। গত সোমবার তোলা উপগ্রহ চিত্র জানাচ্ছে, প্যাংগং হ্রদের দক্ষিণে ভারতীয় সেনার প্রতিরোধে পিছু হটার পরে এ বার হ্রদের উত্তরের ফিঙ্গার এরিয়ায় আগ্রাসী ভূমিকায় চিনা ফৌজ। সেখানকার ফিঙ্গার এরিয়া-৪-এ ফের ফিরে এসেছে তারা! এমনকি, বেজিংয়ের তরফে ভারতীয় সেনার বিরুদ্ধে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা (এলএসি) লঙ্ঘনের যে অভিযোগ তোলা হচ্ছে, তার সত্যতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে ‘ম্যাক্সার টেকনোলজিস’-এর ওই উপগ্রহ ছবি।

সেনা ও কূটনৈতিক স্তরের আলোচনার পরে জুলাইয়ের গোড়ায় ফিঙ্গার এরিয়া-৪ থেকে শিবির তুলে পিছিয়ে গিয়েছিল চিনা সেনা। কিন্তু নতুন উপগ্রহ চিত্র বলছে, সেখানে এ বার শক্তি বাড়িয়ে ফিরে এসেছে তারা। এখন সেখানে দেড় কিলোমিটারেরও বেশি এলাকা জুড়ে চিনা ফৌজের শিবির। গোটা কুড়ি ‘হাই মবিলিটি মাল্টিপারপাস হুইল্‌ড ভেহিক্‌ল’ (হাম্ভি) এবং সারি সারি সেনা পরিবহণ যানের সমাবেশ! অথচ, জুলাইয়ের শুরুতে প্যাগংয়ের পাড়ের ওই এলাকা থেকে শিবির তুলে পিছিয়ে গিয়েছিল চিন।

প্যাংগংয়ের উত্তরে ফিঙ্গার এরিয়া-৮ (এলএসির অবস্থান এখানেই) থেকে ফিঙ্গার এরিয়া-৫-এর মধ্যে রাস্তা এবং পাকাপোক্ত শিবির গড়ার চিনা তৎপরতাও নজরে এসেছে ‘ম্যাক্সার’-এর। চিনা সংস্থা মেংশির তৈরি মেশিনগান সজ্জিত ‘হাম্ভি’ পার্বত্য এলাকায় দ্রুত যাতায়াত এবং লড়াইয়ের উপযোগী। ফলে চিনা ফৌজের উদ্দেশ্য নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

আরও পড়ুন: অবশেষে ভারতীয় বায়ুসেনার অন্তর্ভুক্ত রাফাল যুদ্ধবিমান

চিনা সেনার তরফে ভারতীয় সেনার বিরুদ্ধে প্যাংগংয়ের দক্ষিণে এলএসি লঙ্ঘনের যে অভিযোগ তোলা হয়েছে, উপগ্রহ চিত্রে তার প্রমাণ মেলেনি। এলএসি লাগোয়া হেলমেট টপেও সেনা উপস্থিতির চিহ্ন দেখা যায়নি। বরং ওই পাহাড়টির নীচে পিপলস লিবারেশন আর্মির ঘাঁটির ছবি ধরা পড়েছে।

আরও পড়ুন: ফরওয়ার্ড পোস্টের দখল নিতেই পরিকল্পিত হামলা চিনের, দাবি ভারতীয় সেনার

তবে সেনা সূত্রের খবর, ৩০ অগস্টের পর থেকে প্যাংগং হ্রদের দক্ষিণে অনেকগুলি উঁচু এলাকাই এখন ভারতীয় ফৌজের ঘাঁটি। থাকুং সেনাঘাঁটির অদূরে কালা টপ এলাকা থেকে রেচিন লা পর্যন্ত কয়েক কিলোমিটার দীর্ঘ এলাকা জুড়ে চিনা ফৌজের গতিবিধির উপর নজর রাখছে সেনা। সামরিক দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ মুকপরী এবং রেজাংলাতেও ভারতীয় সেনা ঘাঁটি গেড়েছে। ফলে প্যাংগংয়ের দক্ষিণে স্পাংগুর হ্রদ লাগোয়া উপত্যকায় মোতায়েন চিনা বাহিনীও চলে এসেছে ‘নাগালে’।

আরও পড়ুন: আইসিএমআর-এর গবেষণায় প্লাজমা থেরাপির ‘ব্যর্থতা’ নিয়ে উঠছে প্রশ্ন​

সোমবার রাতে, ব্যাংহং হুনান এলাকায় এলএসি পেরিয়ে শেনপাও হিলে ভারতীয় সেনার ‘ফরওয়ার্ড পোস্ট’ দখল করতে এসে চিনা বাহিনী শূন্যে গুলি ছোড়ে বলে অভিযোগ। যদিও বেজিংয়ের তরফে সেই অভিযোগ খারিজ করে ভারতীয় সেনার বিরুদ্ধে এলএসি লঙ্ঘন এবং গুলি ছোড়ার পাল্টা অভিযোগ তোলা হয়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE