×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২২ জুন ২০২১ ই-পেপার

দেশ

মোদীর সরকারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত, প্রতিরক্ষায় রাজনাথ, অর্থে নির্মলা, দেখে নিন কে কী মন্ত্রী হলেন

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ৩১ মে ২০১৯ ১৩:৪০
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এ বার ঘোষণা হল তাঁর মন্ত্রিসভা। কে কে এলেন নতুন মন্ত্রিসভায়? নতুন কোনও মুখ কি জায়গা করে নিলেন মোদীর দ্বিতীয় মন্ত্রিসভায়?

প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকছে মহাকাশ, পরমাণু, কর্মিবর্গ, জন অভিযোগ। পেনশন, গুরুত্বপূর্ণ নীতি নির্ধারণের দায়িত্বেও তিনিই থাকবেন।
Advertisement
প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের দায়িত্ব দেওয়া হল রাজনাথ সিংহকে। এর আগে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের দায়িত্বে এলেন অমিত শাহ।
Advertisement
প্রাক্তন বিদেশ সচিবের এস জয়শঙ্করের হাতে এল বিদেশ মন্ত্রক।

নিতিন গডকড়ীকে দেওয়া হল সড়ক পরিবহণ মন্ত্রক। ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের দায়িত্বও তাঁরই।

নির্মলা সীতারমণকে দেওয়া হল অর্থ মন্ত্রক ও কর্পোরেট সংক্রান্ত মন্ত্রকের দায়িত্ব।

রামবিলাস পাসোয়ান এলেন ক্রেতা সুরক্ষা, খাদ্য এবং গণবন্টনের দায়িত্বে।

নরেন্দ্র সিংহ তোমর পেলেন কৃষি, গ্রামোন্নয়ন দফতর, পঞ্চায়েতি রাজ মন্ত্রকের দায়িত্ব।

রবিশঙ্কর প্রসাদকে আগের মতোই আইন মন্ত্রকের দায়িত্ব দেওয়া হল। সঙ্গে যোগাযোগ, বৈদ্যুতিন ও তথ্যপ্রযুক্তিও তিনিই সামলাবেন।

হরসিমরত কউর বাদল পেলেন খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ মন্ত্রকের দায়িত্ব।

থবরচন্দ গহলৌত এলেন সামাজিক ন্যায় ও ক্ষমতায়ন মন্ত্রকের দায়িত্বে।

মন্ত্রিসভার নতুন মুখ রমেশ পোখরিয়াল নিশাঙ্ক পেলেন মানব সম্পদ উন্নয়ন দফতরের দায়িত্ব।

ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অর্জুন মুণ্ডা পেলেন আদিবাসী বিষয়ক মন্ত্রক।

স্মৃতি জুবিন ইরানি পেলেন নারী ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রক। বস্ত্র মন্ত্রকের দায়িত্বেও তিনি।

হর্ষ বর্ধনকে দেওয়া হল স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের দায়িত্ব। এ ছাড়াও বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, ভূবিজ্ঞান দফতরের দায়িত্বও তাঁর।

প্রকাশ জাভড়েকর পেলেন পরিবেশ, বন, জলবায়ু পরিবর্তনের দায়িত্ব। তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের দায়িত্বও তাঁর।

পীযূষ গয়াল আগের মতোই রেল মন্ত্রকের দায়িত্বে রইলেন। সঙ্গে রয়েছে শিল্প-বাণিজ্যও।

ধর্মেন্দ্র প্রধান পেট্রলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রকের দায়িত্ব পেলেন। ইস্পাত মন্ত্রকের দায়িত্বেও তিনি।

মুখতার আব্বাস নকভী পেলেন সংখ্যালঘু উন্নয়ন দফতরের দায়িত্ব।

প্রহ্লাদ জোশী পেলেন সংসদ বিষয়ক মন্ত্রকের দায়িত্ব। কয়লা ও খনি মন্ত্রকের দায়িত্বেও তিনি।

মহেন্দ্র নাথ পাণ্ড্যের দায়িত্বে দক্ষতা উন্নয়ন মন্ত্রক ও শিল্পোদ্যোগ মন্ত্রক।

অরবিন্দ সবন্ত মন্ত্রিসভার নয়া মুখ। তিনি পেলেন ভারী শিল্প এবং বেসরকারি উদ্যোগ মন্ত্রকের দায়িত্ব।

গিরিরাজ সিংহ বেগুসরাই থেকে কানহাইয়া কুমারকে পরাজিত করেছেন। গিরিরাজ পেলেন পশুপালন, ডেয়ারি ও মৎস্য দফতরের দায়িত্ব।

গজেন্দ্র সিংহ শেখাওয়াত পেলেন জল শক্তি দফতরের দায়িত্ব।

বাংলা থেকে বাবুল সুপ্রিয় পেলেন বন, পরিবেশ, জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব। দেবশ্রী চৌধুরী পেলেন নারী ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব।

স্বাধীন প্রতিমন্ত্রী হিসাবে শ্রমিক ও নিয়োগ দফতরের দায়িত্ব সন্তোষকুমার গাংওয়ারের। রাও ইন্দ্রজিৎ সিংহ পরিসংখ্যান ও কর্মসূচি রুপায়ণ, পরিকল্পনা মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে। শ্রীপদ নায়েক আয়ুর্বেদ, যোগ, নেচারোপ্যাথি, ইউনানি, হোমিওপ্যাথি ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী।

জিতেন্দ্র সিংহ উত্তর-পূর্ব ভারত উন্নয়ন, প্রধানমন্ত্রীর দফতর, কর্মিবর্গ, গুরুত্বপূর্ণ নীতি নির্ধারণ, মহাকাশ, পরমাণু দফতরের স্বাধীন প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পেলেন। কিরেন রিজিজু যুবকল্যাণ, ক্রীড়া, সংখ্যালঘু দফতরের স্বাধীন প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পেলেন। প্রহ্লাদ সিংহ পটেল সংস্কৃতি, পর্যটনের স্বাধীন প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে।

রাজ কুমার সিংহ বিদ্যুৎ, পুনর্ব্যবহারযোগ্য শক্তি, দক্ষতা, শিল্পোদ্যোগের স্বাধীন প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে। হরদীপ সিংহ পুরী আবাসন, নগরোন্নয়ন, অসামরিক বিমান পরিবহণ, শিল্প-বাণিজ্য দফতরের স্বাধীন প্রতিমন্ত্রী। মনসুখ এল মাণ্ডব্য জাহাজ, রাসায়নিক ও সার দফতরের স্বাধীন প্রতিমন্ত্রী।

ফগ্গনসিংহ কুলাস্তে (প্রতিমন্ত্রী): স্টিল, অশ্বিনীকুমার চৌবে (প্রতিমন্ত্রী): স্বাস্থ্য-পরিবারকল্যাণ মন্ত্রক, অর্জুন রাম মেঘাওয়াল (সংসদীয় বিষয়, ভারী শিল্প বেসরকারি উদ্যোগ প্রতিমন্ত্রী), ভিকে সিংহ (সড়ক, যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী), কৃষ্ণ পাল (সামাজিক ন্যায়বিচার-ক্ষমতায়ন প্রতিমন্ত্রী), দনভে রাওসাহেব (ক্রেতাসুরক্ষা, খাদ্য-প্রক্রিয়াকরণ প্রতিমন্ত্রী), জি কিষান রেড্ডি (স্বরাষ্ট্র দফতরের প্রতিমন্ত্রী)।

সুরেশ অঙ্গদী (রেল প্রতিমন্ত্রী), নিত্যানন্দ রাই (স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী), রতনলাল কাটারিয়া(জলশক্তি-প্রতিমন্ত্রী), ভি মুরলিধরন (বিদেশ, সংসদীয় বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী), রেণুকা সিংহ সারুতা (আদিবাসী উন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী), সোম প্রকাশ (শিল্প-বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী), রামেশ্বর তেলি (খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ প্রতিমন্ত্রী), প্রতাপচন্দ্র সারঙ্গী (ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প, পশুপালন দফতরের প্রতিমন্ত্রী), কৈলাশ চৌধরি (কৃষি, কৃষি উন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী)

পুরুষোত্তম রুপালা (কৃষি প্রতিমন্ত্রী), রামদাস আটাওয়ালে (সামাজিক ন্যায়বিচার-ক্ষমতায়ন প্রতিমন্ত্রী), সাধ্বী নিরঞ্জন জ্যোতি (গ্রামোন্নয়ন দফতরের প্রতিমন্ত্রী), সঞ্জীব কুমার (পশুপালন প্রতিমন্ত্রী) সঞ্জয় শামরাও (মানবসম্পদ, জনসংযোগ, তথ্যসম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী), অনুরাগ ঠাকুর (অর্থ দফতরের প্রতিমন্ত্রী)