Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

রংবদল ভূস্বর্গে! প্রচারে সবুজই প্রিয় বিজেপির

হিন্দুত্ববাদী বিজেপির বিজ্ঞাপনে সবুজের আধিক্য নজর কেড়েছে অনেকেরই।

সংবাদ সংস্থা
শ্রীনগর ০৮ এপ্রিল ২০১৯ ০৪:৩৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
শ্রীনগরে বিজেপি প্রার্থী শেখ খালিদ জাহাঙ্গিরের প্রচার।

শ্রীনগরে বিজেপি প্রার্থী শেখ খালিদ জাহাঙ্গিরের প্রচার।

Popup Close

ভোটের আসরে রং বদলায়। রং বদলাতেও হয় অনেককে। তেমনই এক রং বদলের সাক্ষী থাকছে কাশ্মীর। লোকসভা ভোটের প্রচারে গেরুয়া ছেড়ে সবুজের শরণাপন্ন হয়েছে বিজেপি।

শ্রীনগর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী শেখ খালিদ জাহাঙ্গির উপত্যকায় বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্বের বিশেষ বিশ্বাসভাজন বলে পরিচিত। বৃহস্পতিবার কাশ্মীরের ইংরেজি ও উর্দু দৈনিকের পাতায় মস্ত বড় নির্বাচনী বিজ্ঞাপন প্রকাশ করেছেন খালিদ। তাতে স্লোগান রয়েছে ‘খালিদ হ্যায় তো সলিড হ্যায়’। কিন্তু তার চেয়েও তাৎপর্যপূর্ণ হল গোটা বিজ্ঞাপনে সবুজের ছড়াছড়ি। বিজেপির প্রতীক পদ্মের পাপড়ির রং সাধারণত হয় গেরুয়া। কিন্তু এ ক্ষেত্রে সেই রং সাদা। নীচে সবুজে লেখা রয়েছে বিজেপি। গোটা দেশে বিজেপির বিজ্ঞাপনে নরেন্দ্র মোদীর ছবির গুরুত্বই সবচেয়ে বেশি। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে খালিদের বিজ্ঞাপনে মোদীর ছবি প্রার্থীর ছবির চেয়ে ছোট। প্রধানমন্ত্রীর ছবির পাশে সবুজ অক্ষরেই কাশ্মীরের উন্নয়নের জন্য খালিদকে ভোট দেওয়ার আর্জি জানানো হয়েছে। আজ সবুজ ও সাদায় মেশানো একটি বিজ্ঞাপন টুইটারেও ‘শেয়ার’ করেছেন খালিদ। সেইসঙ্গে তাঁর বার্তা, ‘‘আমার সঙ্গীরা বলেছেন ভয় পাবেন না, আল্লা আমাদের সঙ্গে রয়েছেন। শেষ পর্যন্ত আমরাই জয়ের স্বাদ পাব।’’

ইসলামের সঙ্গে সবুজের যোগ নিবিড়। আবার কাশ্মীরের রাজনীতিতে সবুজের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বেশি বিজেপির প্রাক্তন জোটসঙ্গী পিডিপি-র। পিডিপি-র নির্বাচনী প্রতীক ‘দোয়াত-কলম’-এ থাকে সবুজের ছড়াছড়ি। তাই উপত্যকায়

Advertisement

হিন্দুত্ববাদী বিজেপির বিজ্ঞাপনে সবুজের আধিক্য নজর কেড়েছে অনেকেরই।

তবে খালিদ কেবল সবুজেই থেমে নেই। কাশ্মীরের মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছে পৌঁছতে অন্য পথও বেছে নিয়েছেন তিনি। বুধবার কাশ্মীরের সুফি ধর্মস্থান চারার-ই-শরিফে আশীর্বাদ চাইতে যান তিনি। সেই সফরের সরাসরি সম্প্রচার হয়েছে ফেসবুক লাইভে। তাতে দেখা গিয়েছে সুফি ধর্মগুরু খালিদের হয়ে প্রার্থনা করছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় খালিদের বার্তা, ‘‘১৯৯৫ সালে পাকিস্তানি জঙ্গি মস্ত গুল চারার-ই-শরিফ পুড়িয়ে দিয়েছিল। আজ সেখানেই সুফি সন্ত নন্দ রেশির অনুগামীরা কাশ্মীরিয়তকে রক্ষা করার শপথ নিয়েছেন। আমি নিজেকে ধন্য মনে করছি।’’

খালিদের নির্বাচনী প্রচারও কাশ্মীর নিয়ে বিজেপির প্রচারের চেয়ে কিছুটা আলাদা। জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদার মতো বিতর্কিত বৃহত্তর রাজনৈতিক বিষয় ছেড়ে তিনি মন দিয়েছেন স্থানীয় বিষয়ে। বিজ্ঞাপনে তাঁর প্রতিশ্রুতি,

গান্ধেরবাল, বাদগাম ও শ্রীনগরের যুবক-যুবতীদের জন্য কাজের সুযোগ তৈরি হবে। হবে হাই-টেক স্টেডিয়াম, পিভিআর সিনেমা, স্মার্ট ভিলেজ, আইপিএলের মতো প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ।

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

খালিদের বক্তব্য, ‘‘আমি রং দিয়ে রাজনীতির বিচার করি না। আমি যা করতে পারব সেই কাজ করারই প্রতিশ্রুতি দিয়েছি। বাকি দলগুলি মিথ্যে বলছে।’’ খালিদের কটাক্ষ, ‘‘কেন্দ্রে এনডিএ সরকারে মন্ত্রী থাকার পরে হয়তো ওমর আবদুল্লা বিজেপিকে সাম্প্রদায়িক মনে করেন। রাজ্যে জোট সরকার চালানোর পরে তেমনই মনে করছেন মেহবুবা মুফতি। কিন্তু আমি মনে করি না বিজেপি মুসলিম-বিরোধী। আমরা জাতীয়তাবাদী, ধর্মনিরপেক্ষ দল।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement