Advertisement
২৫ জুলাই ২০২৪
Jalees Ansari

পালানোর ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই উত্তরপ্রদেশ পুলিশের জালে ‘ডক্টর বম্ব’ 

সম্প্রতি ২১ দিনের প্যারলে ছাড়া পেয়েছিলেন এই অপরাধী। পুলিশের নির্দেশ অনুযায়ী, দক্ষিণ মুম্বইয়ের এগরিপাড়া এলাকার বাসিন্দা রোজই স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে হাজিরা দিচ্ছিলেন।

১৯৯৩ মুম্বই হামলার অন্যতম আসামী জলিস আনসারি

১৯৯৩ মুম্বই হামলার অন্যতম আসামী জলিস আনসারি

সংবাদ সংস্থা
লখনউ শেষ আপডেট: ১৭ জানুয়ারি ২০২০ ১৭:১৮
Share: Save:

লুকোচুরি শেষ। অবশেষে ধরা দিলেন ১৯৯৩ সালের মুম্বই হামলার কুখ্যাত চক্রী জলিস আনসারি ওরফে ‘ডক্টর বম্ব’। উত্তরপ্রদেশ পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স এ দিন তাঁকে কানপুরের এক মসজিদের সামনে থেকে ধরে ফেলে। পুলিশের দাবি, নেপাল হয়ে দেশ ছাড়ার পরিকল্পনা ছিল জলিসের।

সম্প্রতি ২১ দিনের প্যারলে ছাড়া পেয়েছিলেন এই অপরাধী। পুলিশের নির্দেশ অনুযায়ী, দক্ষিণ মুম্বইয়ের এগরিপাড়া এলাকার বাসিন্দা রোজই স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে হাজিরা দিচ্ছিলেন। শুক্রবার তাঁর আত্মসমর্পণ করার কথা ছিল। তার আগেই বৃহস্পতিবার গা ঢাকা দেন জলিস। তাঁকে হয়ে হন্যে খুঁজতে শুরু করে মুম্বই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ। সতর্ক করা হয় অন্যান্য রাজ্যের পুলিশকেও।

শুক্রবার উত্তরপ্রদেশ পুলিশের শীর্ষকর্তা ওপি সিংহ বলেন, ‘‘কানপুরের একটা মসজিদ থেকে বেরোনোর সময়ে জলিস ধরা পড়েছে। সে লখনউ রওনা হচ্ছিল। জলিসকে ধরা উত্তরপ্রদেশ পুলিশের বড় কৃতিত্ব।’’

উত্তর প্রদেশেরই সন্ত কবীর নগরে জলিসের আদি বাড়ি। গা ঢাকা দিতে সেখানেই এসেছিলেন তিনি। পুলিশের অনুমান নেপাল হয়ে দেশ ছাড়ার পরিকল্পনা ছিল তাঁর।

আরও পড়ুন:প্যারোলে ছাড়া পেয়ে নিখোঁজ মুম্বই বিস্ফোরণের যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ‘ডক্টর বম্ব’, ঘুম উড়েছে পুলিশের

জলিস ছিলেন বোমা বিশেষজ্ঞ। কোন বিস্ফোরক কতটা পরিমাণে ও কী ভাবে মেশালে কতটা জোরালো বিস্ফোরণ হবে, সে সব ছিল তাঁর নখদর্পনে। সেই কারণেই তাঁর নাম ছিল ‘ডক্টর বম্ব’। সিমি, ইন্ডিয়ান ,মুজাহিদিনের মত জঙ্গিগোষ্ঠীর সঙ্গে প্রত্যক্ষ যোগাযোগ ছিল তাঁর। ১৯৯৩ মুম্বই হামলা সহ দেশের বহু বিস্ফোরণে নাম জড়িয়েছিল জলিসের।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Jalees Ansari Mumbai Serial Blasts Dr Bomb
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE