Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

স্বামীর সঙ্গে কর্মীর খোঁজে গিয়ে মহারাষ্ট্রে গণধর্ষিতা ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

মহিলার স্বামীকে বেঁধে গাড়ির ভেতর ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। একই সঙ্গে মহিলাকে গণধর্ষণ করে মুকুন্দ ও তার দলবল।

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ০৩ অগস্ট ২০১৮ ১১:৪৭
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

মহারাষ্ট্রের সাংলিতে ৮ জন মিলে গণধর্ষণ করল ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক মহিলাকে। মহিলার স্বামী একজন হোটেল ব্যবসায়ী। নিজেদের হোটেলের জন্য কর্মীর খোঁজে সাংলির তাসগাঁওতে গিয়েছিলেন ওই দম্পতি।

কর্মীর খোঁজ মিলেছে, এই টোপ দিয়ে তাঁদের ডাকে মুকুন্দ মানে নামের এক ব্যক্তি। সঙ্গে অগ্রিম হিসেবে কুড়ি হাজার টাকাও দাবি করে সে। টাকা নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছতেই দলবল নিয়ে তাঁদের ওপর চড়াও হয় মুকুন্দ মানে। বাঁশ, পাইপ, রড দিয়ে বেধড়ক মারের পর তাঁদের সমস্ত টাকা পয়সা, সোনাদানা কেড়ে নেওয়া হয়। এরপর মহিলার স্বামীকে বেঁধে গাড়ির ভেতর ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। একই সঙ্গে মহিলাকে গণধর্ষণ করে মুকুন্দ ও তার দলবল।পুলিশে অভিযোগ করে কোনও লাভ নেই, কারণ তারা এলাকার প্রভাবশালী মানুষ, এই হুমকিও দেওয়া হয় তাঁদের।

কোনও রকমে প্রাণে বেঁচে ওই দম্পতি তাসগাঁও থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। ৮ দুষ্কৃতীর মধ্যে তাঁরা চার জনের নাম পুলিশকে বলতে পেরেছেন। তারা হল মুকুন্দ, সাগর, জাভেদ আর বিনোদ। যদিও ৪৮ ঘন্টা কেটে গেলেও এখনও কাউকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ। পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝে সাংলি জেলার পুলিশ কমিশনারকে চিঠি দিয়েছেন মহারাষ্ট্র মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন। দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার পাশাপাশি একটি রিপোর্টও জমা দিতে বলেছেন তিনি।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement