Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

বিরিয়ানি খেতে না দেওয়ায় ধোনির হোটেল ত্যাগ

বিরিয়ানি খেতে না দিলে মেজাজ কতটা গরম হতে পারে? পারে, বেশ ভাল রকমই পারে। নামটা মহেন্দ্র সিংহ ধোনি হলেও পারে, আর মেজাজ এতটাই গরম হয় যে হোটেল ছ

নিজস্ব প্রতিবেদন
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ০২:৪৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

বিরিয়ানি খেতে না দিলে মেজাজ কতটা গরম হতে পারে?

পারে, বেশ ভাল রকমই পারে। নামটা মহেন্দ্র সিংহ ধোনি হলেও পারে, আর মেজাজ এতটাই গরম হয় যে হোটেল ছেড়ে টিম নিয়ে বেরিয়েও যাওয়া যায়!

বাইশ গজে ভারত অধিনায়ককে খুব কমই মেজাজ হারাতে দেখা যায়। কিন্তু বিরিয়ানি-প্রশ্নে ‘ক্যাপ্টেন কুল’ যে কোনও রকম আপস পছন্দ করেন না, সেটা খুব ভাল করে বুঝে গেল হায়দরাবাদের এক অভিজাত হোটেল। অম্বাতি রায়ডুর বাড়ি থেকে পাঠানো বিরিয়ানি বোর্ডরুমে বসে টিমের সঙ্গে খেতে চেয়েছিলেন ধোনি। হোটেল কৃর্তপক্ষ অনুমতি দেয়নি। ব্যস্, ধোনি আর দু’বার ভাবেননি। গোটা চেন্নাই সুপার কিংসের সংসার নিয়ে সোজা হোটেল বদল!

Advertisement

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ টি-টোয়েন্টি খেলতে হায়দরাবাদ গিয়েছিল ধোনির সিএসকে। রায়ডু সিএসকে-তে খেলেন না, হায়দরাবাদেও তিনি ছিলেন না। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে ম্যাচ খেলছিলেন রায়পুরে। কিন্তু ভারত অধিনায়ক যেহেতু তাঁর শহরে, তাই নিজের বাড়ি থেকে গোটা সিএসকে টিমের জন্য বিরিয়ানি পাঠানোর ব্যবস্থা করেছিলেন রায়ডু। বিপত্তিটা বাঁধায় হোটেল কর্তৃপক্ষ। তারা নাকি বলতে থাকে, প্রথমত বাইরের খাবার ওই সাততারা হোটেলের ভিতরে আনার অনুমতি দেওয়া হয় না। তবু সেটা দেওয়া হতে পারে যদি প্লেয়াররা ঘরে বসে খান। ধোনি নাকি চেয়েছিলেন, হোটেলের বোর্ডরুমে বসে টিমকে নিয়ে বিরিয়ানি খেতে। হোটেল কর্তৃপক্ষ যাতে রাজি ছিল না।

এবং এটুকুই যথেষ্ট ছিল ক্যাপ্টেন কুলকে রাগিয়ে দিতে। প্রায় অগ্নিশর্মা হয়ে নাকি ধোনি হোটেলে গোটা টিমের বুকিং ক্যানসেল করে দেন। সাপোর্ট স্টাফ থেকে শুরু করে প্লেয়ার সবার। গোটা টিম নিয়ে বেরিয়ে চলে যান আর এক অভিজাত হোটেলে। আর ধোনির এই অভিনব হুজ্জুতিতে কালঘাম ছুটে যায় হায়দরাবাদ পুলিশের। কারণ সিএসকে পরে যে হোটেলে ওঠে, সেখানে টিম থাকার কোনও সম্ভাবনা ছিল না বলে নিরাপত্তা-সংক্রান্ত ব্যাপারগুলো খতিয়ে দেখা ছিল না। পরে জানা যায়, ধোনিদের সঙ্গে হোটেলের ‘দুর্ব্যবহারে’ ক্ষুব্ধ হয়ে নাকি বোর্ড সুপ্রিমো নারায়ণস্বামী শ্রীনিবাসনও ওই হোটলে বুকিং ক্যানসেল করে দেন।

বোর্ডের তরফে অবশ্য স্বীকার করা হচ্ছে না যে, বিরিয়ানি নিয়ে নাটকই ধোনিদের হোটেল-ছাড়া করেছে। এক কর্তা বলেও দিয়েছেন, বিরিয়ানিই এই ঘটনার পিছনে প্রধান ‘খলনায়ক’ কি না, তিনি জানেন না। তবে এটা জানেন, ধোনি ওই হোটেল নিয়ে খুশি ছিলেন না। সংশ্লিষ্ট হোটেল কর্তৃপক্ষ থেকে বলা হচ্ছে যে সিএসকে হোটেল ছেড়ে বেরিয়ে গিয়েছে, সত্যি। কিন্তু কেন, সেটা জানতে হলে সিএসকে-কেই জিজ্ঞেস করতে হবে।



Tags:
Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement