Advertisement
২৩ এপ্রিল ২০২৪
পুলিশি নিরাপত্তার কড়াকড়ি

দিল্লির রাস্তায় দেল পিয়েরোর সাংবাদিক সম্মেলন

ভারতে খেলতে এসে বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন ফুটবলার তাঁর প্রথম সাংবাদিক সম্মেলন করলেন রাস্তায়! নেপথ্যে নিরাপত্তার কড়াকড়ি! আইএসএলে দিল্লি ডায়নামোসের হয়ে খেলতে গতকালই দিল্লিতে পা দিয়েছিলেন জুভেন্তাস ও ইতালির বিখ্যাত ফরোয়ার্ড আলেসান্দ্রো দেল পিয়েরো।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ০২:৪৮
Share: Save:

ভারতে খেলতে এসে বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন ফুটবলার তাঁর প্রথম সাংবাদিক সম্মেলন করলেন রাস্তায়!

নেপথ্যে নিরাপত্তার কড়াকড়ি!

আইএসএলে দিল্লি ডায়নামোসের হয়ে খেলতে গতকালই দিল্লিতে পা দিয়েছিলেন জুভেন্তাস ও ইতালির বিখ্যাত ফরোয়ার্ড আলেসান্দ্রো দেল পিয়েরো। আর আজ তাঁর সাংবাদিক সম্মেলন ছিল দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় মাঠে। যেটা আপাতত দেল পিয়েরোর আইএসএল দলের প্র্যাকটিস মাঠ। কিন্তু টিম সূত্রে খবর, এ দিন দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঠে অনুশীলনের সময় ফুটবলারদের নিরাপত্তার কারণে পুলিশ দর্শক এবং মিডিয়াকে ঢুকতে বাধা দেয়। সে কারণেই বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বদলে খোলা রাস্তাতেই সাংবাদিকদের সঙ্গে মিলিত হন তারকা বিশ্বকাপার দেল পিয়েরো।

২০০৬ বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন ইতালি দলের মহাতারকা ফরোয়ার্ড অবশ্য এ নিয়ে নিজের বিরক্তি প্রকাশ করেননি। বরং সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলে যান, “ভারতে সবে এসেছি। মাত্র এক দিন হল। ভালই লাগছে। তবে এক দিনের অভিজ্ঞতা যথেষ্ট নয়। এ দেশের পরিবেশের সঙ্গে মানাতে পারলে ভালই লাগবে।” এখানেই না থেমে তিনি আরও বলেন, “ভারত সম্পর্কে অনেক কথা পড়েছি, শুনেছি। তবে এখানে এসে এটা বুঝতে পারছি, যে জগৎ থেকে আমি উঠে এসেছি, ভারত তার বাইরে। এখানকার ধর্ম, ভাষা, খাবার সব কিছুর সঙ্গেই আমাকে আত্মস্থ হতে হবে।”

তাঁর বর্তমান দল নিয়ে জানতে চাইলে দিল্লি ডায়নামোসের দেল পিয়েরো বলেছেন, “কোচের সঙ্গে কথা হয়েছে। কিন্তু দলের স্ট্র্যাটেজি নিয়ে এখনও কোনও কথা হয়নি।” সঙ্গে এটা বলতেও ভোলেননি, “ভারতীয় ফুটবল দলের খেলা কোনও দিন দেখিনি। সতীর্থদের সঙ্গে কথা হলে ভারতের ফুটবল সম্পর্কে অনেক কথাই জানতে পারব।”

ভারতে এসেছেন নিজের ভাই কাম ম্যানেজার এবং এক ফটোগ্রাফার বন্ধুকে নিয়ে। উদ্দেশ্য, আইএসএলের ফাঁকে এ দেশের সম্পর্কে আরও ভাল করে জানা। তাঁর কথায়, “আইএসএলে আমার লক্ষ্য ফুটবলের প্রতি এ দেশের মানুষের ভালবাসা আর আবেগ আরও বাড়িয়ে তোলা। একটা বাচ্চা ছেলের মতোই ভারতকে জানতে মুখিয়ে রয়েছি। এখানে এক দিন কাটিয়েই বেশ কিছু ফুটবলপাগল মানুষকে দেখলাম। ভালই লাগছে।”

দিল্লি ডায়ানামোসের মার্কি ফুটবলার দেল পিয়েরো জুভেন্তাস ছাড়ার স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বলেন, “আমার ফুটবলজীবনের সেরা অভিজ্ঞতা টানা ১৯ বছর জুভেন্তাসে খেলা। মধুর স্মৃতি। তাই জীবনের যে কোনও সময় ইতালি ছেড়ে বাইরে খেলার ব্যাপারটা অন্যতম কঠিন সিদ্ধান্ত ছিল।” আগামী নভেম্বরেই চল্লিশে পা দেবেন দেল পিয়েরো। আইএসএল নিয়ে দেল পিয়েরো বলেন, “প্রথম কয়েকটা ম্যাচ খুব গুরুত্বপূর্ণ। বিদেশে ভিন্ন সংস্কৃতির সঙ্গে মানিয়ে নেওয়াই এ ক্ষেত্রে আমার কাছে একটা বড় চ্যালেঞ্জ।”

এ দিকে, ইতালির বিশ্বকাপজয়ী দলে দেল পিয়েরোর বিতর্কিত সতীর্থ (ফাইনালে জিদানের সঙ্গে ঢুঁসো-কেলেঙ্কারি) মাতেরাজ্জি রবিবার ভারতে পৌঁছচ্ছেন চেন্নাই ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে (চেন্নাইয়ান এফসি) খেলার জন্য। এই দলের বেসক্যাম্প বেঙ্গালুরুতে চলায় মাতেরাজ্জি সটান বেঙ্গালুরুতেই নামবেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE