Advertisement
২৫ জুন ২০২৪
Ola and Uber

ফ্রেব্রুয়ারি থেকেই বন্ধ অ্যাপ ক্যাব পরিষেবা! দেশের কোন রাজ্যে জারি হল এই নিয়ম?

অ্যাপ-ক্যাবের উপর ভরসা করেই রাস্তায় বার হন তরুণ প্রজন্মের একাংশ। কিন্তু হঠাৎ এই পরিষেবা বন্ধ হওয়ার কারণ কী?

পরিষেবা বন্ধ হলে সাধারণ মানুষ যে সমস্যায় পড়বেন, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

পরিষেবা বন্ধ হলে সাধারণ মানুষ যে সমস্যায় পড়বেন, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
নয়া দিল্লি শেষ আপডেট: ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ১৭:৩৪
Share: Save:

মাসের পয়লা তারিখ থেকেই অসমের গুয়াহাটিতে বন্ধ সব ধরনের অ্যাপ-ক্যাব পরিষেবা। দীর্ঘ দিন ধরে এই অ্যাপ-ক্যাব চালকদের উপর সংস্থার জুলুম রুখতে ‘অল আসাম ক্যাব মজদুর সঙ্ঘ’ এবং ‘অল গুয়াহাটি বাইক এবং ট্যাক্সি ইউনিয়ন’ যৌথ ভাবে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

২০১৫ সালে অসমের এই পরিষেবা চালু হয়েছিল। প্রথম বছরে পরিষেবা এবং ভাড়া, দুইয়ের পরিমাণই ভাল ছিল। কিন্তু চাহিদা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই সংস্থা প্রতিটি যাত্রার ভাড়া থেকে ৪০ থেকে ৬০ শতাংশ কমিশন কেটে নেয় বলে জানান মজদুর সঙ্ঘের সাধারণ সভাপতি জ্যোতিষ ঢেকা। তিনি আরও বলেন, “চাহিদা অনুযায়ী যাত্রীদের থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হলেও তা চলে যায় সংস্থার হাতে। এ দিকে চালকরা ১৮ থেকে ২০ ঘণ্টা করে খাটেন। গাড়ির মাসিক কিস্তি মিটিয়ে, পরিবারের খরচ চালানোর পর, সঞ্চয়ের জন্য আর কিছুই থাকে না।”

অ্যাপ পরিচালিত ১৮ হাজার গাড়ি এবং ১৬ হাজার অ্যাপ নির্ভর বাইক বর্তমানে যাত্রীদের পরিষেবা দিচ্ছিল। পরিষেবা বন্ধ হলে সাধারণ মানুষ যে সমস্যায় পড়বেন, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। কিছু দিন আগে বম্বে হাইকোর্টের রায়ে মহারাষ্ট্র সরকারও অ্যাপ চালিত সব পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Ola Uber
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE