চাকরির টোপ দিয়ে মেয়েকে ওমানে নিয়ে গিয়ে আটকে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ তুললেন হায়দরাবাদের এক বাসিন্দা। মেয়েকে ফিরে পেতে বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সাহায্য চেয়েছেন রশিদা বেগম নামে ওই মহিলা।

রশিদা জানিয়েছেন, শাহিদা নামে এক এজেন্টের সঙ্গে ওমানে ২৫ হাজার টাকা মাসিক বেতনের চাকরির কথা পাকা হয়েছিল তাঁর মেয়ের। শাহিদাকে বিশ্বাস করে ৯ ডিসেম্বর ওমান রওনা হয়েছিলেন ওই তরুণী। মায়ের অভিযোগ, সেখানে পৌঁছনোর পরে তরুণীকে একটি অফিসে আটকে রাখা হয়। বেতন দেওয়া তো দূরস্থান ভাল করে খেতেও দেওয়া হচ্ছে না মেয়েকে।

রশিদার কথায়, ‘‘সব জানার পরে ওই এজেন্টের সঙ্গে যোগাযোগ করি। সে বলেছে, মেয়েকে দেশে ফেরাতে হলে আরও ২ লক্ষ টাকা দিতে হবে। আমার মেয়েকে ওমানে অত্যাচার করা হচ্ছে। সুষমা স্বরাজের কাছে ওকে ফেরানোর আবেদন জানাচ্ছি।’’